নাটাবাড়ি: বিজেপিতে যোগ দিলেন কোচবিহারের নাটাবাড়ির প্রয়াত প্রাক্তন সিপিএম বিধায়ক শিবেন্দ্র চৌধুরীর ছেলে সন্দপ চৌধুরী। কোচবিহার জেলা বিজেপির দফতরে মঙ্গলবার বিজেপিতে যোগ দেন সন্দীপ চৌধুরী। বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু তাঁর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন। গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়ে আগের দল সিপিএমের সমালোচনা সন্দীপ চৌধুরীর মুখে। তাঁর অভিযোগ, আগে উদ্বাস্তুদের জন্য নানা আন্দোলন করলেও এখন ভিত্তিহীনভাবে সিপিএম এনআরসি ও সিএএ-র বিরোধিতা করছে।

বাবার মতো সক্রিয় সিপিএম না করলেও দলের সঙ্গে আগাগোড়া যোগ ছিল সন্দীপ চৌধুরীর। সিপিএমের একাধিক কর্মসূচিতেও দেখা যেত তাঁকে। এবার বিজেপিতে যোগদান করলেন নাটাবাড়ির প্রাক্তন সিপিএম বিধায়ক শিবেন্দ্র চৌধুরীর ছেলে সন্দীপ চৌধুরী। মঙ্গলবার কোচবিহারে বিজেপির সদর কার্যালয়ে উপস্থিত হন সন্দীপ। আগেভাগেই তাঁর দলবদলের যাবতীয় কাজ সেরে রেখেছিলেন কোচবিহার জেলা বিজেপি নেতৃত্ব।

এদিন দলের জেলা কার্যালয়ে হাজির ছিলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। সন্দীপ চৌধুরীর হাতে তিনিই দলের পতাকা তুলে দেন। এদিকে, দলবদল করেই সিপিএমকে একহাত নেন সন্দীপ। সন্দীপবাবু প্রয়াত সিপিএম বিধায়ক শিবেন্দ্র চৌধুরীর ছেলে। রাজ্যের পরিবহণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশাপাশি এনবিএসটিসির চেয়ারম্যান ছিলেন শিবেন্দ্র চৌধুরী । কোচবিহারের নাটাবাড়ি বিধানসভাকেন্দ্রের এই প্রাক্তন বিধায়ক এই জেলায় দল তৈরি ও সংগঠন বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছিলেন ।

এদিকে, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই সন্দীপ চৌধুরী বলেন, ‘এক সময় উদ্বাস্তুদের জন্য বহু আন্দোলন করেছে সিপিএম৷ কিন্তু এখন সেসব অতীত৷ উলটে অকারণে এনআরসি ও সিএএ-র বিরোধিতা করছে বামেরা।’ সিপিএমের সমালোচনার পাশাপাশি রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলেরও কড়া সমালোচনা করেন সন্দীপ। রাজ্যের গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফেরাতে বিজপিই একমাত্র বিকল্প বলে দাবি করেন তিনি।

অন্যদিকে, সন্দীপ চৌধুরী দলে যোগ দেওয়ায় কোচবিহারে বিজেপির সাংগঠনিক শক্তি আরও বাড়বে বলে মত দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসুর। অন্যদিকে, সন্দীপের দলবদলে বিশেষ আমল দিতে নারাজ জেলা সিপিএম নেতৃত্ব। এমনকী সন্দীপ চৌধুরীর সঙ্গে দলের কোনও যোগ ছিল না বলেই দাবি করেছেন জেলা সিপিএমের নেতারা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ