হাওড়া: প্রতি বুথে নেই কেন্দ্রীয় বাহিনী৷ অশান্তির থবর মিলেছে রাজ্যের প্রথম পর্বের ভোটে৷ বিরোধীদের কাঠগড়ায় কমিশনের ভূমিকা৷ যদিও কমিশনের দাবি রাজ্যের দুই কেন্দ্রে ভোট হয়েছে অবাধ৷ তাই নির্বাচন কমিশনকে নিজেদের কাজ স্মরণ করিয়ে দিলেন হাওড়া সদরের সিপিএম প্রার্থী সুমিত্র অধিকারী৷

সুমিত্র অধিকারী বলেন, ‘‘আগামী ৬মে হাওড়ায় নির্বাচন। আমরা প্রস্তুত। সকল মানুষ যাতে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন সেই ব্যবস্থা নির্বাচন কমিশনকে করতে হবে। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রায় ৩৪ শতাংশ মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেননি। সকলেই যাতে গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারেন তা দেখতে হবে।’’

হাওড়া সদর সিপিএম প্রার্থী সুমিত্র অধিকারী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন৷ জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তীর হাতে মনোনয়ন জমা দেন তিনি৷ অন্যদিকে এডিএম অভিষেক তিওয়ারির হাতে মনোনয়নপত্র জমা দেন উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী মাকসুদা খাতুনও।

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের শ্লোগান জীবন-জীবিকা, রুটি-রুজি, কর্মসংস্থান, শান্তি-সম্প্রীতি, শ্রমিকের অবস্থা, কৃষকের অবস্থা, মায়েদের অবস্থা৷ তা সাধারণ মানুষের কাছে উৎসাহ উদ্দীপনার সঞ্চার করেছে। এই স্লোগান ভীষণভাবে সাড়া ফেলেছে। আমরা এবারের নির্বাচনে বিশেষভাবে আশাবাদী। মানুষের এই উন্মাদনা আমরা ভোট বাক্সে আনতে পারব।’’