মুম্বইঃ কৃষক ভুখা৷ কৃষক আত্মহত্যা করছেন-এই মর্মান্তিক সত্যিকে মুম্বইয়ের রাজপথে লাল সুনামির মতো এনেছিল বামপন্থী সংগঠন সারা ভারত কৃষকসভা৷ মহারাষ্ট্র সরকার চমকে গিয়েছিল৷ শুধু তাই নয়, লক্ষ লক্ষ মানুষের সেই লং মার্চ ঝড় তুলেছিল বিশ্ব সংবাদ মাধ্যমে৷

লাগাতার কৃষক আন্দোলনে মহারাষ্ট্র সুফল পেল সিপিএম৷ দাহানু বিধানসভায় ফের জয়ী বামেরা৷ গতবার এই কেন্দ্রটি বিজেপি কেড়ে নিয়েছিল৷ এবার সেই আসন ফের ছিনিয়ে আনল সিপিএম৷ দলীয় প্রার্থী বিনোদ বিভা নিকোলে ৪৩২১ ভোটে জয়ী হয়েছেন৷ পরাজিত হয়েছেন বিজেপির প্রার্থী৷

দাহানু কেন্দ্রটি বামেদের অন্যতম শক্তি৷ ১৯৭৮ সালে এই কেন্দ্রে প্রথমবার জয়ী হয় সিপিএম৷ তারপর থেকে লাগাতার কৃষক আন্দোলনে নিজেদের জমি শক্তিশালী করাই লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায়৷ সেই জমি ও কৃষক আন্দোলনের ফল বিরাট কৃষক লংমার্চ৷ ক্রমে শক্তি বাড়তে থাকে বাম দলটির৷ একদা যে রাজ্যে গোদাবরী পারুলেকরের মতো নেতৃত্ব ছিলেন সেখানে বামপন্থীদের শক্তি কমলেও দাহানু কেন্দ্রে ২০০৯ সালে পুনরায় জয়ী হয় সিপিএম৷ ২০১৪ বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রটি গিয়েছিল বিজেপির দখলে৷

আর সর্বশেষ বিধানসভা নির্বাচনে দাহানু কেন্দ্রে আবার উড়ছে লাল পতাকা৷ জয়ী বিধায়ক বিনোদ বিভা নিকোলে-কে অভিনন্দন জানিয়েছে সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটি৷ দাহানু নিয়ে সিপিএম আশায় ছিল৷ জয়ী হয়ে সেই আশা পূরণ করেছেন নিকোলে৷

দেশে ক্রমাগত কমেছে বাম শক্তি৷ বহু দিনের শক্তিশালী ঘাঁটি পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরায় সরকার নেই৷ এই দুই রাজ্য থেকে কোনও সাংসদই পাঠাতে পারেনি বামেরা৷ গত লোকসভায় তামিলনাড়ুতে ডিএমকের সঙ্গে জোট করে সুফল পায় সিপিএম-সিপিআই৷ তামিলনাড়ু থেকেই সংসদে গিয়েছেন কয়েকজন বাম সাংসদ৷ কেরলে বাম সরকার রয়েছে৷ লোকসভায় সেখানে ধাক্কা খেলেও, উপনির্বাচনে এলডিএফের জয়ের সংবাদ এসেছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I