শিলিগুড়ি: করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান অশোক ভট্টাচার্য। বর্ষীয়ান এই সিপিএম নেতা সোমবারই হাসপাতাল থেকে শিলিগুড়িতে তাঁর নিজের বাড়িতে ফিরবেন। একটানা বেশ কয়েকদিন ভর্তি ছিলেন মাটিগাড়ার বেসরকারি হাসপাতালে।

সেখানেই দিনরাত তাঁর খেয়াল রেখেছেন চিকিৎসকরা। একটানা কয়েকদিনের চিকিৎসার পর এখন পুরোপুরি সুস্থ প্রাক্তন মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য।

দলেন নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি হাসপাতালে থাকাকালীন তাঁর খোঁজ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের অন্য মন্ত্রীরাও নিয়মিতভাবে খোঁজ নিয়েছিলেন।

শেষমেশ সুস্থ হয়ে আজ বাড়ি ফিরবেন অশোক ভট্টাচার্য। বাড়িতেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন অশোকবাবু। করোনার সংক্রমণ থাকায় ১৬ জুন মাটিগাড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। ১৭ জুন তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

শুরু থেকেই আইসিইউতে ভর্তি রেখে চিকিৎসা করা হয় অশোক ভট্টাচার্যের। হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন দ্বিতীয়বার তাঁর করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছিল। সেই রিপোর্টও পজিটিভ আসে। উদ্বেগ বাড়ছিল। তবে চিকিৎসায় শুরু থেকেই সাড়া দিচ্ছিলেন অশোকবাবু। শেষমেশ ২ জুলাই তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার হাসপাতাল থেকে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হলেও আপাতত ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে সিপিএমের এই বর্ষীয়ান নেতাকে।

দলের নেতা সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরছেন শুনে স্বভাবতই খুশি শিলিগুড়ি বাম নেতৃত্ব। রাজ্যজুড়ে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে শিলিগুড়িতেও। নতুন করে ২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন শিলিগুড়িতে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ