বারাকপুর: এবার আড়ম্বর করে গোমাতার পুজো করল তৃণমূল। গোপাষ্টমীতে ঘটা করে গোরু পুজো করলেন তৃণমূল নেতা দীনেশ বাজাজ। আর তা নিয়েই হইচই।

হিন্দু ভোট টানতেই এই চাল, কটাক্ষ করেছে বিজেপি। এদিকে তৃণমূলের দাবি, গরু হিন্দুদের দেবতা, এর সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই।

উত্তর চব্বিশ পরগনার বাদুতে গো-পুজো করেন তৃণমূল নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক দীনেশ বাজাজ। আর তা নিয়েই চরমে উঠেছে রাজনৈতিক তরজা। বিজেপির বারাসাত সাংগঠনিক জেলা সভাপতি শঙ্কর চট্টোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, সামনে বিধানসভা নির্বাচন। হিন্দু ভোট টানতে গোমাতার পুজো করছে তৃণমূল।

উল্টোদিকে তৃণমূলের দাবি, গরু হিন্দুদের দেবতা, এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই। পাঁচ বছর ধরে গরু পুজো করছেন, বলেছেন দীনেশ বাজাজ।

এই প্রথম নয়, এর আগে রামনবমী থেকে রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে চরমে উঠেছে তৃণমূল-বিজেপি রাজনৈতিক টক্কর। এবার বিতর্কের কেন্দ্রে তৃণমূলের গো-পুজো।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.