কলকাতা: নারকেলডাঙায় বহুতল থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধ৷ মৃতের নাম রামকিশোর কেজরিওয়াল (৭০)। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়৷

জানা গিয়েছে, রামকিশোর কেজরিওয়াল কিছুদিন আগে করোনা আক্রন্ত হল৷ তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ৷ তাঁর পরিবারের দু’টি শিশু বাদে বাকি আরও ৪ জন করোনায় আক্রান্ত৷ প্রত্যেকেই বাড়িতেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন৷ ফলে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন রামকিশোরবাবু৷

যদিও পরিবারের দাবি,কয়েক বছর আগে বেঙ্গল কেমিক্যালের কাছে ২ কোটি টাকা দিয়ে এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলেন রামকিশোর কেজরিওয়াল৷ কিন্তু সমস্ত টাকা মেটানোর পরও তিনি ফ্ল্যাট ‘হ্যান্ডওভার’পাননি৷ তার ফলেই রামকিশোরবাবু মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন৷ তবে পুলিশ রামকিশোরবাবু পরিবারকে আশ্বস্ত করে বলেন, অভিযোগ পেলে তারা ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবেন৷

বুধবার সকালে ১০৮ এর বি নারকেলডাঙা মেইন রোডের বহুতলের ওপর থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হন রামকিশোর কেজরিওয়াল৷ ভারী কিছু পড়ার আওয়াজ পেয়ে বাড়ির লোকেরা বাইরে বেড়িয়ে দেখেন রামকিশোরবাবু নীচে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছেন৷ খবর দেওয়া হয় পুলিশকে৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন ডিসি ই এস ডি অজয় প্রসাদ৷ পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়৷

করোনা আতঙ্কে বেশ কয়েক মাস ধরে ঘরবন্দি অধিকাংশ মানুষ৷ এর ফলে অনেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছেন ৷ তার মধ্যে নিজের পরিবারে কেউ করোনা আক্রান্ত হলে আরও বেশি আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন৷ ফলে তাদের মধ্যে বাড়তে থাকে উদ্বেগ৷ যার পরিণতি আত্মহত্যা৷ এমনটাই মনে করছেন অনেক মনোবিদ৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও