প্রতীকী ছবি

লখনউ: সরকারি হাপাতালগুলির বিরুদ্ধে করোনা রোগীদের অভিযোগ কোনও নতুন ঘটনা না। কিন্তু এবার একেবারে নজিরবিহীন ঘটনা। হাসপাতালে নুন্যতম খাবার, জল না পেয়ে বিক্ষোভের রাস্তায় হাঁটতে বাধ্য হলেন করোনা রোগীরা। উত্তরপ্রদেশে প্রয়াগরাজে ঘটেছে এই ঘটনা।

বিক্ষোভের ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তিন মিনিটের ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, প্রয়াগরাজের কোটওয়া বানি এলাকায় কোভিড-১৯ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন রোগীরা। অভিযোগ, তাঁদের অবস্থা পশুর থেকেও খারাপ।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ২ ঘন্টা চেষ্টা করেও জল সরবরাহ করতে বাধ্য হওয়ায় এই বিক্ষোভ দেখিয়েছেন করোনা রোগীরা। হাসপাতালের বাইরে বেরিয়ে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন করোনা রোগীরা। এর মধ্যেই একজন চিৎকার করে বলতে থাকেন, “আমাদেরকে আপ্নারা পশুতে পরিণত করেছন। আমরা কি পশু? আমাদের কি জলের দরকার পড়ে না”

যে ব্যক্তি ভিডিও করছিলেন তিনি প্যান করে দেখিয়েছেন, হাসপাতালের বাইরে বিক্ষোভ করছেন করোনা রোগীরা। একই সঙ্গে হাসপাতালের সাইনবোর্ডটিও দেখিয়েছেন তিনি।

ভিডিও করা ব্যক্তি যখন রোগীদের উদ্দেশ্যে জিজ্ঞেস করেন,”আপনারা কি ঠিকমতো খাবার পাচ্ছেন?” সমবেত উত্তর আসে “না”। এক বৃদ্ধ জানিয়েছেন, তাঁরা যে খাবার পান তা অর্ধেক রান্না করা। এমনকি কিছু রোগী কর্তৃপক্ষকে ভালো খাবার দিতে টাকা দেওয়ার কথাও বলেন। তাঁদের বক্তব্য, “আপনাদের কাছে টাকা না থাকলে আমাদের থেকে নিন।”

প্রয়াগরাজের মেডিকেল অফিসার জানিয়েছেন, দুঘন্টার মধ্যে জলের সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছিল। তিনি জানিয়েছেন, বৈদ্যুতিক ত্রুটির কারণে জল সরবরাহে সমস্যা ছিল। উত্তরপ্রদেশে কোভিড-১৯ হাসপাতালে এমন অভিযোগ অবশ্য নতুন নয়। আগেও রাজ্যের আগ্রা থেকে এমন খবর মিলেছিল।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব