ঢাকা: ভারত থেকে আসছে করোনাভাইরাস টিকা। বাংলাদেশ সরকারকে উপহার হিসেবে এই টিকা পাঠাচ্ছে ভারত। বৃহস্পতিবার ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন তাদের ফেসবুক পেজে টিকা পাঠানোর ছবি প্রকাশ করছে।

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে খবর, ভারত থেকে চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে পাঠানো হয়েছে ২০ লাখ ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন। এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিশেষ ফ্লাইটে আসছে এই টিকা।

বৃহস্পতিবার এয়ার ইন্ডিয়ার এই বিশেষ ফ্লাইট মুম্বই থেকে উড়ান শুরু করেছে। ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এই বিমান অবতরণ করবে বাংলাদেশ সময় বেলা ১১টার পরে।

বাংলা দেশের ৩৭ ভাগ শিশু এবং যাদের বয়স ১৮ বছরের নিচে তারা কেউ টিকা পাবে না। যাদের ক্যান্সার আছে বা যারা ক্যান্সারের ওষুধ খেয়ে থাকেন, অথবা যারা স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধ নিয়ে থাকেন তারা ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না। এছাড়া যার বর্তমানে কোভিডে আক্রান্ত তারাও টিকা গ্রহণ করতে পারবেন না।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।