লন্ডন: বিশ্বজুড়ে মহামারী নোভেল করোনা ভাইরাসের দাপুটে আস্ফালন। পরিস্থিতি যে দিকে এগোচ্ছে তাতে বিশেষ আশার আলো দেখছেন না উদ্যোক্তারা। তাই স্থগিতের পাশাপাশি চলতি মরশুমে বাতিলও হয়ে যেতে পারে উইম্বলডনের মতো অভিজাত গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট। বুধবার এমনটাই জানালো অল ইংল্যান্ড লন টেনিস ক্লাব।

আগামী ২৯ জুন থেকে ১২ জুলাই অল ইংল্যান্ড ক্লাবে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনার জেরে উইম্বলডনের ভবিষ্যৎ এখন বিশ বাঁও জলে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে কিংবা আগামিদিনে টুর্নামেন্ট নিয়ে একটি স্বচ্ছ রুপরেখা তৈরি করতে আগামী সপ্তাহেই একটি জরুরি বৈঠকে বসতে চলেছে এইএলটিসি। বৈঠকে এইএলটিসি’র সঙ্গে আলোচনায় অংশগ্রহণ করবে এটিপি, ডব্লুটিএ, আইটিএফ ও অন্যান্য গ্র্যান্ড স্ল্যম আয়োজকরা।

তবে আর যাইহোক উইম্বলডন ক্লোজ-ডোর আয়োজন করার যাবতীয় সম্ভাবনা পত্রপাঠ খারিজ করে দিয়েছে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি যথাসময় স্থগিত রেখে পরবর্তীতে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনাও প্রায় অসম্ভব বলেই মনে করছে অল ইংল্যান্ড লন টেনিস ক্লাব। করোনার জেরে এটিপি এবং ডব্লুটিএ আগামী ৭ জুন অবধি স্থগিত রেখেছে তাদের সমস্ত টুর্নামেন্ট। ফলে সেপ্টেম্বর অবধি স্থগিত রাখা হয়েছে ফরাসি ওপেন।

এইএলটিসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘যুক্তরাজ্য সরকার এবং বিভিন্ন স্বাস্থ্য সংগঠনের সঙ্গে আমরা জানুয়ারি থেকেই আলোচনা চালাচ্ছি। তাদের উপদেশ মেনে COVID-19’র প্রভাব অনুমান করার চেষ্টা করছি। তাছাড়া টুর্নামেন্ট আয়োজনের ক্ষেত্রে সরকারের জরুরি নির্দেশিকা জারি তো রয়েইছে। করোনায় প্রাণ হারানো মানুষদের পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা।’

উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে ব্যাপক জাল বিস্তার করেছে মহামারী করোনা। মারোন ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪ লক্ষ ৭০ হাজার। প্রাণ হারিয়েছেন ২১ হাজারেরও বেশি মানুষ। স্বাভাবিকভাবে করোনার প্রভাব পড়েছে খেলার মাঠেও। বিশ্বজুড়ে স্তব্ধ খেলার মাঠ। অবস্থা বেগতিক দেখে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো আর্থ’ অলিম্পিক ২০২১ অবধি স্থগিত রেখেছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ