করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে বিশ্বজুড়ে। চিন-ইতালি মিলিয়েই ৪ হাজারের বেশি মৃত। আর বিশ্বজুড়ে নিহতের সংখ্যা ৫ হাজার পেরিয়েছে। ভারতেও ছড়াচ্ছে এই ভাইরাস। শুক্রবার পর্যন্ত মৃত দু জন।

বিভিন্ন চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় বেশি সেই সংক্রান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে বিবিসি

রিপোর্টে বলা হয়েছে-করোনাভাইরাস সংক্রমণের লক্ষণ দেখা দিলে বা এমন সন্দেহ হলে প্রথমেই আক্রান্ত ব্যক্তিকে আশপাশের লোকজন থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করে ফেলতে হবে। এর উদ্দেশ্য হলো যাতে আপনার বাড়ি পরিবার, কর্মস্থলে, ভাইরাস ছড়াতে না পারে।

সেল্ফ আইসোলেসন করবেন এইভাবে-

১.ঘরে থাকুন। প্রকাশ্য স্থানে যাওয়া বন্ধ করে দিন।
২. এমন একটা ঘরে থাকুন যাতে জানালা আছে, ভালোভাবে বাতাস চলাচল করতে পারে।

৩. আপনাকে কেউ যেন দেখতে না আসে তা নিশ্চিত করুন।

৪. আপনার জন্য খাবার বা জিনিসপত্র নিয়ে আসবে, তাদের বলুন আপনার ঘরের দরজার বাইরে সেগুলো রেখে যেতে।

৫. একটি রান্নাঘর থাকলে, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি এমন সময় যাবেন যখন সেখানে কেউ থাকবে না। রান্নাঘর থেকে খাবার নিয়ে নিজের ঘরে গিয়ে খাবেন।

৬.ঘরের মেঝে, টেবিল চেয়ারের উপরিভাগ প্রতিদিন তরল সাবান বা অন্য কোনো ক্লিনিং প্রোডাক্ট দিয়ে পরিষ্কার করুন।

যদি সেল্ফ আইসোলেসন না করতে পারেন, তাহলে এই পদ্ধতি মানুন-

১.নিজেকে সম্পূর্ণ অন্যদের থেকে কমপক্ষে ২ মিটার বা ৬ ফুট দূরে রাখুন।
২. ঘুমানোর সময় একা ঘুমান।
৩. করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেশি বিপজ্জনক হতে পারে বয়স্কদের ক্ষেত্রে। তাদের থেকে দূরে থাকুন।

অবশ্যই করোনা আক্রান্ত রোগীর পরিবারের সদস্যরা সরাসরি সরকারি চিকিৎসা পরিষেবার আওতায় আসবেন।

(সৌ: বিবিসি প্রতিবেদন)