স্টাফ রিপোর্টার, হাবড়া : করোনা আক্রান্ত রোগীদের দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা শুরু করতে এবার উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে চালু হল র‍্যাপিড টেস্টের মাধ্যমে করোনা নির্ণয় পরিষেবা।

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে সঠিক পরিষেবা দেওয়ার লক্ষ্যে কলকাতা এবং বারাসতের পর এবার হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে চালু হল র‍্যাপিড টেস্ট পদ্ধতির মাধ্যমে করোনা নির্ণয়।

রবিবার হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে এসে পৌঁছেছে করোনা নির্নায়ক র‍্যাপিড কিট। এই বিষয়ে,হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সুপার শঙ্করলাল ঘোষ বলেন, “সাধারণ মানুষকে যত দ্রুত সম্ভব আমরা পরিষেবা দিতে তৎপর। এখন আরও সুবিধা হবে করোনা পরীক্ষা করতে। মাত্র ১৫ মিনিট থেকে ৩০ মিনিটের ভেতর করোনা আক্রান্ত রোগীদের রিপোর্ট হাতে পাওয়া যাবে।”

আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত অমিত শাহ

তিনি আরও বলেন, “এতদিন পর্যন্ত হাবরা হাস্পাতালে যে সমস্ত ছোটখাটো অপারেশন হত তা করোনা চিকিৎসার জন্য বন্ধ করা হয়েছিল। হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে রেপিড টেস্ট পদ্ধতির চালু হওয়ায় এখন অন্যান্য চিকিৎসা পরিষেবা ও নতুন করে এই হাসপাতালে চালু করা যাবে।”

কোভিড পজিটিভ রোগীদের দ্রুত শনাক্ত করে তাদের নির্দিষ্ট বিভাগে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া সম্ভব হবে।

আরও পড়ুন: আধার কার্ড হারিয়ে গিয়েছে? উদ্ধার করুন এক মিনিটে

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.