ভোপাল: করোনাভাইরাস এবার থাবা বসাল এক সাংবাদিকের শরীরে৷ যাঁরা সারাদিন খবর সংগ্রহ করতে ব্যস্ত৷ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাঁরা দিবারাত্র করোনাভাইরাসের আপডেট দিয়ে চলেছেন, এই মারণ ভাইরাস ছাড়ল না সাংবাদিককেও৷এর ফলে মধ্যপ্রদেশের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১৫৷

বুধবার ভোপালে এক সাংবাদিকের শরীরে মিলল COVID19৷ তাঁর মেয়ের শরীরেও মিলেছে এই মারণ ভাইরাস৷ গত সপ্তাহে ভোপালে সদ্য প্রাক্তন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের প্রেস কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন ওই সাংবাদিক৷ কমলনাথের প্রেস কনফারেন্সে ওই সাংবাদিকের সংস্পর্শে কারা এসেছিলেন, তাঁদের খুঁজে বের করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে৷

এর ফলে মধ্যপ্রদেশের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১৫৷ তবে ভোপালে আক্রান্তের সংখ্যা ২৷ এর আগে তাঁর মেয়ের শরীরে মিলেছিল করোনা ভাইরাস৷ বুধবার এইমস-এ ৫৫ বছরের ওই সাংবাদিকের টেস্টেও COVID19 পজিটিভ আসে৷ এর আগেও তাঁর টেস্ট পজিটিভ আসে৷এদিন তাঁর দ্বিতীয় টেস্ট পজিটিভ হওয়ার পর এইমস-এর তরফে জানানো হয়৷ জানা গিয়েছেন এই বর্ষীয়ান এই সাংবাাদিক ভোপালের প্রফেসর কলোনিতে থাকেন৷

ভোপালের প্রথম COVID19 আক্রান্ত হলেন ওই সাংবাদিকের মেয়ে৷ যিনি ১৭ মার্চ ইংল্যান্ড থেকে ফিরেছেন৷ তারপর ১৮ মার্চ ট্রেনে করে ভোপালে পৌঁছন৷ সেই সময় প্রায় ১৫৭ জনের সঙ্গে সংস্পর্শে এসেছিলেন৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ