তেহরান: করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে মক্কায় যাত্রা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে আগেই। এবার বন্ধ হচ্ছে শুক্রবারের প্রার্থনাও। ইরানের করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতে শুরু করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিল তেহরান।

বুধবার পর্যন্ত ইরানে করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ৯২। আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ২৯২২ জন। চিনের পর ইরানেই এই ভাইরাসে সবথেকে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যে সব মিলিয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩১৪০।

অন্যদিকে, একই কারণে হজ যাত্রা সাময়িক স্থগিত রাখল সৌদি আরব। সৌদি নাগরিক ও বাসিন্দাদের জন্য এই নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। নতুন ধরণের করোনাভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সেজন্য সতর্কতা হিসাবে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সে দেশের সরকারি সংবাদমাধ্যম।

গত সপ্তাহেই বিদেশি নাগরিকদের জন্য মক্কা ও মদিনায় ওমরাহ পালন ও ধর্মীয় সব কর্মকাণ্ড বন্ধের কার্যত বিরল নির্দেশ দেয় সৌদি আরব।

ওমরাহ হজ করার জন্য জমা নেওয়া অর্থ এজেন্সির মাধ্যমে ফেরত দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে। এছাড়া পর্যটন ভিসা থাকা সত্ত্বেও করোনাভাইরাস ধরা পরেছে এমন এলাকা থেকে আসা বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সৌদি আরবে প্রবেশ না করতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে দেশের প্রশাসন। তবে এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট করে দেশগুলির নাম উল্লেখ করা হয়নি।

মক্কায় ওমরাহ বন্ধ করার পাশাপাশি পবিত্র নগরী মদিনায়ও প্রবেশ বন্ধ করা হয়েছে। হজের পর ওমরাহকে প্রধান ধর্মীয় গুরুত্বপূর্ণ কাজ বলে দেখা হয়।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।