স্টাফ রিপোর্টার,মালদহ: করোনা মহামারির এই সময় যেন সরকারি হাসপাতালগুলির করুণ চেহারা সামনে চলে এসেছে। আগেও যে সরকারি হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ উঠত না এমন নয়। কিন্তু করোনা সময়ে উঠে আসছে কোথাও আক্রান্তদের প্রতি অবহেলা তো কোথাও আবার মাস্ক, পিপিই কিটের ব্যবহার বিধির অসচেতনতার ছবি।

মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বর ও শহরের যত্রতত্র পড়ে রয়েছে এমনই ব্যবহার করা পিপিই। আর যা নিয়ে জেলাবাসীর মধ্যে আরও তীব্র হচ্ছে করোনাতঙ্ক।

যদিও সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে ঘটনার খবর শুনে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ ও ইংরেজবাজার পুরসভা। গোটা ঘটনা নিয়ে পুরসভা ও স্বাস্থ্য দফতরের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিজেপি।

মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড টেস্টিং ইউনিটের পাশেই পড়ে রয়েছে ব্যবহার করা পিপি ই। শুধু মেডিকেল কলেজে নয় শহরের পথে ঘাটে ও কয়েক জায়গায় পড়ে রয়েছে এধরণের পিপিই।

ঘটনাটি সংবাদমাধ্যমের নজরে আসতেই নড়েচড়ে বসে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রিন্সিপাল পার্থপ্রতিম মুখোপাধ্যায় এই ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

এই বিষয়ে ইংরেজবাজার পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য দুলাল সরকার বলেন, ” পুরসভা ও বেসরকারি হাসপাতালের সামনে এনিয়ে তাঁদের সঙ্গে কথা বলে সেগুলো সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে।আর কেউ যদি ইচ্ছাকৃত ভাবে ফেলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

এদিকে স্বাস্থ্য দপ্তরের এবং পুরসভার ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিজেপির মালদহ জেলার সহ-সভাপতি অজয় গঙ্গোপাধ্যায়।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও