ফাইল ছবি

ওয়াশিংটন: জুন মাস অবধি মার্কিন মুলুকে মারণ ভাইরাস দাপট দেখাতে পারে আশঙ্কা প্রকাশ করছে বিশেষজ্ঞরা। করোনার মারণ কামড়ে মৃত্যু হতে পারে কমপক্ষে ৮১ হাজার মানুষের, সম্প্রপ্তি এমনই রিপোর্ট প্রকাশ্যে এসেছে ওয়াশিংটন স্কুল অফ মেডিসিন ইউনিভার্সিটির রিপোর্টের মাধ্যমে।

বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, এপ্রিলের দুই নম্বর সপ্তাহে দেশজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি থাকবে। তবে কয়েকটি রাজ্যে যে, এই সংখ্যা পরের দিকে সর্বোচ্চ সীমা ছোঁবে তাও জানানো হয়েছে রিপোর্টে। আশঙ্কা করা হচ্ছে জুলাইয়ের শেষের দিকে এই ভাইরাসে আমেরিকায় বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সরকার, হাসপাতাল এবং অন্যান্য উত্স থেকে প্রাপ্ত তথ্য ব্যবহার করে এই বিশ্লেষণে এসে পৌঁছেছেন স্কুল অফ মেডিসিন ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞরা। জানানো হয়েছে, কমপক্ষে ৩৮ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ৬২ হাজার মানুষের মৃত্যু হতে পারে এই ভাইরাসের আক্রমণে।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে আমেরিকায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে চিন ও ইতালিকে। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতেই অন্য দেশকে টপকে আক্রান্ত সংখ্যার বিচারে সর্বোচ্চ স্থানে উঠে আসে আমেরিকা। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে পাওয়া হিসেব বলছে, ৮২,৪০৪ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন আমেরিকায়। যা ইতালির থেকেও বেশি।

তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে কার্যত করোনা ভাইরাসের এপিসেন্টারে পরিণত হয়েছে এমন আশঙ্কা আগেই করা হয়েছিল জন হপকিনইস ইউনিভার্সিটির দেওয়া রিপোর্টে। বর্তমানে মিলে যাচ্ছে সেই তথ্য, আর তাতেই এই বিপদের ভয়াবহ গুরুত্বকে বিচার করে আঁতকে উঠছেন ট্রাম্প প্রশাসকেরা।