লন্ডন: চিনকে মৃত্যুপুরী করে দিয়ে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস। যার পোশাকি নাম কভিড-১৯। এই ভাইরাসের কবলে পড়লে ইউরোপ জুড়ে শুরু হবে মহামারি। গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়েছে, শুধুমাত্র ব্রিটেনেই ৪ লক্ষ মানুষের মৃত্যুর সম্ভাবনা।

চিনের পরিস্থিতি আরও উদ্বেগজনক। মৃতের সংখ্যা ১৬০০ পার করেছে। বিবিসি জানাচ্ছে, ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সন্ধান মিলেছে এবার মিশরে। আফ্রিকার মাটিতে এটাই তার প্রথম উপস্থিতি।

এশিয়ার মাটিতে চিনে তাণ্ডব চালানোর পাশাপাশি বিভিন্ন দেশে হামলা চালাতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস। এই পরিস্থিতিতে ইউরোপে কী হতে পারে সেটারই ইঙ্গিত দিল ইম্পিরিয়াল কলেজ লন্ডনের জনস্বাস্থ্য বিভাগের প্রফেসর নেইল ফার্গুনসনের রিপোর্ট।

এই গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, ব্রিটেনের অন্তত ৬০ শতাংশ মানুষ ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন। কম করেও ৪ লক্ষ মানুষের মৃত্যুর সম্ভাবনা থাকছে। ব্রিটিশ জনস্বাস্থ্য বিভাগের অন্যতম কর্মকর্তা নেইল ফার্গুনশনের রিপোর্টের পরেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নতুন করে।

এদিকে প্রশ্ন উঠছে রিপোর্ট ঘিরে। কারণ, চিনের সীমান্ত সংলগ্ন দেশ রাশিয়া। সেটি ইউরোপে পড়ে। রাশিয়ার পরিস্থিতি এখনও উদ্বেগজনক নয়। তাহলে ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের প্রকোপ কতটা হবে তা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।

গবেষণা রিপোর্টে নেইল ফার্গুসনের হিসেব, ব্রিটেনে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে ১ শতাংশ মারা গেলে এই সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ৪ লক্ষের কাছাকাছি।

ব্রিটেনে এখন পর্যন্ত ৮ জন আক্রান্ত। এছাড়া চিন থেকে আসা দেড়শ জনকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। করোনাভাইরাস আতঙ্কে বিশ্বের অন্যতম ব্যাস্ত লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দরে ছড়িয়েছে প্রবল ভয়। ব্যাহত হচ্ছে বিমান পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের কাজকর্ম।

লন্ডনের বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা ও গার্ডিয়ান সংবাদপত্রের রিপোর্ট, করোনাভাইরাস ঢুকেছে ইউরোপে। বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছেন। একজনের মৃত্যু হয়েছে ফ্রান্সে।

কায়রোর সংবাদপত্র ‘আল আহরাম’ জানাচ্ছে, আফ্রিকার মাটিতেও ঢুকেছে ভাইরাসটি। মিশরে একজন সংক্রামিতকে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেই হিসেবে, এশিয়া ছাড়িয়ে এবার আফ্রিকা ও ইউরোপের মাটিতে হামলা করছে অদৃশ্য হানাদার।

বিবিসি জানাচ্ছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মৃত্যু হচ্ছে চিনের বাইরেও। হংকং, ফিলিপাইন্স আর জাপানে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ায় বেশ কয়েকজনের দেহে মিলেছে ভাইরাসের উপস্থিতি। মালয়েশিয়ায় মৃতদের একজন ভারতীয়। ২৭টি দেশে প্রায় ৬৭ হাজার করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-হু আগেই জানিয়েছে, চিনের করোনাভাইরাস হামলা হিমশৈলের চূড়ামাত্র। ভয়ঙ্কর বিপদের মুখে দুনিয়া। ১৮ মাসের আগে এই ভাইরাস প্রতিরোধক টিকা বের করা সম্ভব নয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ