নয়াদিল্লি : আরোগ্যের হার বাড়ছে। এই প্রথম ভারতে অ্যাক্টিভ কেসের হারকে ছাপিয়ে গেল সুস্থ ব্যক্তিদের হার। এই মুহুর্তে ভারতে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ১,৩৩,৬৩২। সেখানে সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা ১,৩৫,৫৮৩। এর ফলে দেশে সুস্থতার হার বৃদ্ধি পেয়ে এখন দাঁড়িয়েছে ৪৮.৮৮ শতাংশ।

২৪ ঘন্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হলেন ৯৯৮৫ জন। নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ২৭৯ জনের। নতুন করে আক্রান্ত ও মৃতের জেরে দেশে এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এসে পৌঁছেছে ২ লক্ষ ৭৬ হাজার ৫৮৩ তে। এরমধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৬৩২ টি। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৩৫ হাজার ২০৬ জন। বর্তমানে দেশজুড়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৭৪৫ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে এই খবর সামনে এসেছে।

দেশের মধ্যে মহারাষ্ট্রেই করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি। হিসেব বলছে মহারাষ্ট্রে ৯০ হাজার ৭৮৭ জন আক্রান্তের মধ্যে ৪২ হাজার ৬৩৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে। মঙ্গলবারে মহারাষ্ট্র সরকারের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, শেষ ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২৫৯ জন। দেশজুড়ে ২৪ ঘন্টায় মোট ৯৯৮৭ জন আক্রান্ত হওয়ার ৪ ভাগের ১ ভাগ এ রাজ্যেই।

এদিকে, রিপোর্ট বলছে দিল্লিতে দ্রুত গতিতে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে ৩১শে জুলাইয়ের মধ্যে শুধু দিল্লিতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াবে ৫.৫ লক্ষ। ফলে মাত্র ৫২ দিনের মধ্যে আরও ৬০ হাজার আসন শুধু করোনা আক্রান্তদের জন্যই তৈরি করতে হবে দিল্লির অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকারকে। সাংবাদিকদের মঙ্গলবার একথা জানান দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিশোদিয়া।

তিনি বলেন গোটা পরিস্থিতি সামাল দিতে জুলাই মাসে ৮০ হাজার আসন প্রয়োজন দিল্লি সরকারের হাতে। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকের দুদিন পরেই এই তথ্য তুলে ধরেন শিশোদিয়া। মঙ্গলবারই রাজধানী দিল্লিতে করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়নি বলেই রাজ্য সরকারকে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় সরকারের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিশোদিয়া। ওই বৈঠকেই দিল্লির সরকারকে আশ্বস্ত করেন কেন্দ্রের প্রতিনিধিরা। অপরদিকে, রাজস্থানে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বুধবার সকাল পর্যন্ত মরুরাজ্যে নতুন করে ১২৩ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১ হাজার ৩৬৮। রাজস্থানে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫৬। বেড়েই চলেছে সংক্রমণ। দিল্লির পাশাপাশি করোনা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে রাজস্থান সরকারেরও। লকডাউন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় জোরদার তৎপরতাতেও থামছে না সংক্রমণ। প্রতিদিনই নতুন করে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় থেকে করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজস্থানে আরও ১২৩ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও