ফুন্টশোলিং সীমান্ত: নিয়ম মানুন। না হলে কড়া হবে সরকার। তবে নিয়ম মেনেই ভুটানবাসী করোন প্রতিরোধে সরকারের পাশে। প্রতিবেশী ভারতে করোনা সন্দেহ রোগীরা কোয়ারেন্টাইন থেকে পালাচ্ছেন। আর ঠিক উল্টো ছবি ভুটানের। এখানে চলছে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন। বুধবার থেকে এই নিয়ম চালু হল। ওপারে ভারত। সেখানে করোনাভাইরাস ক্রমে ছড়াচ্ছে। মৃত তিনজন। ওপারে ভারতের অঙ্গরাজ্য পশ্চিমবঙ্গ-সেখানেও করোনা রোগী ধরা পড়েছে।

এই অবস্থায় চিন ও ভারতের মধ্যবর্তী ছোট্ট দেশ ভুটান তার স্বল্প শক্তি ও কড়া নিয়ম জারি রেখেই গতবছর ডিসেম্বর থেকে করোনাভাইরাস মেকাবিলায় বিশ্বে উজ্জ্বল উদাহরণ। এখনও পর্যন্ত ভুটানে কোনও করোনা রোগী নেই। এমনই দাবি দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রকের। মঙ্গলবার কলকাতায় করোনাভাইরাস রোগী চিহ্নিত হওয়ার পরেই ভুটান সরকার আরও কড়া হল। বুধবার থেকে এই দেশে শুরু হয়েছে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন নিয়ম। সেই নিয়মের আওতায় প্রতিবেশী দেশের সিকিম থেকে ফিরে আসা ২৬ জন ফুন্টশোলিং প্রবেশ করতেই তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়া হল।

এদের মধ্যে বেশিরভাগই পড়ুয়া। তারা সিকিমে পড়তেন। সীমান্তের এপারে ভুটানের চুখা জেলার ফুন্টশোলিং। ওপারে পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার জেলার জয়গাঁ। মাঝে বিখ্যাত সীমান্ত ভুটান গেট। এমনিতেইন মারণ করোনাভাইরাস ছড়ানোর কারণে এই ফটক সহ বাকি সব সীমান্ত চেকপোস্টের যাতায়াতে কড়াকড়ি চলছে। সিকিম থেকে জয়গাঁ হয়ে ফুন্টশেলিং প্রবেশ করতেই চিকিৎসক ও মেডিকেল টিম ঘিরে নেয় ওই ২৬ জন ভুটানিকে। এরপর তাদের দেহের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হয়। প্রত্যেকের নাম নথিভুক্ত করানোর পালা শেষ করে দ্রুত ফুন্টশোলিং শহরের কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

স্থানীয় হাসপাতালে বিশেষ ব্যবস্থা ও পরিচর্যা করা হচ্ছে। রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে থিম্পু তে পাঠানো হবে বলে জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তি জারি করে ভুটান সরকার জানিয়েছে, বিদেশি কেউই এখন থেকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে যাবেন। করোনাভাইরাস প্রতিহত করতে এটি একটি চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জ নিয়েছে সরকার।

ভুটানে এতদিন পর্যন্ত যাদের করোনা রোগী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল তাদের মধ্যে এক মার্কিন নাগরিক ছাড়া সব বিদেশি সুস্থ। তাঁদের দেহে এই জীবাণু মেলেনি। চিন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন বিশ্ব মহামারি। হু সম্প্রতি এমনই জানিয়েছে। চিন সংলগ্ন ১৪টি দেশের মধ্যে রাশিয়া ও ভুটানে করোনা এখনও থাবা মারতে পারেনি।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I