বালুরঘাট: করোনা ভাইরাস সম্পর্কে স্কুলের বাচ্চাদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্যোগ নিল জেলা প্রশাসন৷ প্রাইমারি ও হাইস্কুলের বাচ্চাদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে ব্যাপক প্রচারের নির্দেশ জারি করেছেন জেলাশাসক৷

করোনা ভাইরাস আসলে কী জিনিস, এর লক্ষ্মণগুলি কী, কতটা সংক্রামক ও কী করলে এর থেকে বাঁচা সম্ভব৷ বাচ্চাদের সামনে এই সমস্ত বিষয় তুলে ধরবেন শিক্ষক শিক্ষিকারা৷ বালুরঘাটে এই ব্যাপারে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে প্রশিক্ষণ শিবির করা হয়েছে৷ মারণ এই ভাইরাস সম্পর্কে সতর্কতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ডিআই বিডিও ও অন্যান্য আধিকারিকরা হাজির ছিলেন৷ প্রশিক্ষণ শিবিরে দক্ষিণ দিনাজপুরের সমস্ত প্রাইমারি ও হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রীরা উপস্থিত ছিল৷ বৃহস্পতিবারে সচেতনা শিবিরের পর শুক্রবার ব্লকস্তরে হয় প্রশিক্ষণ৷

অন্যান্য এলাকার মতো করোনার আতংক পৌঁছেছে বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া দক্ষিণ দিনাজপুরের৷ ইতিমধ্যেই আগাম সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসেবে হিলিতে অবস্থিত আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে শুরু হয়েছে বিদেশ থেকে আগতদের উপর নজরদারি৷ বিশেষ করে চীন ছাড়াও যারা জাপান, সাউথ কোরিয়া, ইরান ও ইতালিতে যাতায়াত করে থাকেন৷ তাদের স্কিনিং করা হচ্ছে৷ এপর্যন্ত ছয় হাজার মানুষের স্কিনিং করা হয়েছে হিলি চেকপোস্টে।

দক্ষিণ দিনাজপুরের মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সুকুমার দে জানিয়েছেন, দক্ষিণ দিনাজপুরে এখনো অবধি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কারও খোঁজ পাওয়া যায়নি। তবুও আগাম সতর্কতা হিসেবে সমস্ত রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এই ভাইরাস সম্পর্কে শিশুদের রক্ষা করতে প্রতিটি স্কুলের শিক্ষকদের নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। শিক্ষকরা শিশুদের করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করবেন৷