জেনেভা: নির্বাচনী লড়াইয়ের ফল গণনার মতো সবার চোখ এখন করোনার কাঁটায় স্থির। সেই কাঁটা ক্রমাগত উঠছে দু ভাবে। মৃত্যুর হার ও সুস্থ হওয়ার সূচক দুটোই বাড়ছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসেবে করোনাভাইরাসের হানায় বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা বৃহস্পতিবার সকাল ১১.২০ মিনিট পর্যন্ত ৮৮, ৫১৮ পার করতে চলেছে। অচিরেই এই সংখ্যা ৯০ হাজার ঢুকতে চলছে বলে আশঙ্কা।

এদিকে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সুস্থতার সূচক। ৩ লক্ষ ২৯ হাজার ৪৯২ জন জীবন পেয়েছেন। ফলে মৃতের সংখ্যা বাড়লেও তার তুলনায়লঅনেক বেশি সুস্থ হয়েছেন রোগীরা। রিপোর্ট বলছে, করোনাভাইরাস ১৮৪টি দেশের মানুষ সংক্রামিত। এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট ৪ লক্ষ ৩১ হাজার ৮৩৮ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৭৬৮ জনের। মার্কিন মুলুক প্রবল করোনা সংক্রমণের কেন্দ্র ।

করোনা আক্রন্ত রোগী মৃত্যুর নিরিখে শীর্ষে রয়েছে ইতালি। মৃতের সংখ্যা ১৭ হাজার ৬৬৯ জন। দ্বিতীয় স্থানে স্পেন। মৃতের সংখ্যা ১৪ হাজার ৭৯২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪৮ হাজার ২২০ জন। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়েছিল করোনাভাইরাস। চিনে ৩ হাজার ৩৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইরানেও বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে করোনা হামলায় ইউরোপ মৃত্যুর মহাদেশ হিসেবে কুখ্যাত হয়ে গেল। ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, ইংল্যান্ড, জার্মানি, সহ বিভিন্ন দেশ এই সময়ে চরম বিপদের মুখে। এশিয়ার ভারত, পাকিস্তান,বাংলাদেশে বড়সড় হামলার অপেক্ষায় করোনাভাইরাস।এই তিনটি দেশেও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। অস্ট্রেলিয়া, ওশানিয়া, আফ্রিকা মহাদেশে করোনা এখনো তার আসল রূপ দেখায়নি। এমনই মনে করা হচ্ছে। রাষ্ট্রসংঘ এবং বিশ্ব স্বাস্খ সংস্য়থা জানিয়েছে, করোনার সংক্রমণ রুখতে দরকার পরিচ্ছন্ন তার জন চেতনা।