প্রীতম সরকার, রায়গঞ্জঃ  শহরের এক মশলা ব্যবসায়ীর করোনা সংক্রমণের খবর। আর সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই শহরের সবচেয়ে বড় মোহনবাটি বাজার বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যবসায়ী সমিতি। রায়গঞ্জ মোহনবাটি বাজারের মশলা ও কাজু-কিসমিসের ব্যবসায়ী অমরজিৎ পালের (৩১) লালারস পরীক্ষার রিপোর্টে করোনা পজিটিভের খবর পাওয়ার পরেই বুধবার থেকে শনিবার পর্যন্ত বাজার বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রায়গঞ্জ মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন।

জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্ত ব্যবসায়ীর দোকান চারদিক থেকে ঘিরে দেওয়া হয়েছে৷ আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবার সূত্রে খবর, বেশ কিছুদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন অমরজিৎ। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী লালারসের নমুনা পরীক্ষা করানো হলে তার শরীরে করোনার হদিস পাওয়া যায়।

এরপরেই স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে তাকে কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি তার নেতাজি পল্লির বাড়ি চারিদিক থেকে সিল করে দেওয়া হয়। শনিবার কাউকে না জানিয়ে সোয়াব লালারস পরীক্কার জন্য দেন অমরজিৎ। রবিবার রিপোর্ট আসার পর তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। কিছুক্ষণ বাদে তাকে খুঁজে পাওয়া গেলে দ্রুত কোভিড হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি বাড়িটি ঘিরে দেওয়া হয়েছে। বাজারটি আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

অন্যদিকে, ডালখোলা পুর এলাকায় একদিন ১৭ জনের শরীরে মিলেছে করোনা পজিটিভ ভাইরাস। আক্রান্তদের প্রত্যেককে রায়গঞ্জ কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত ৩০ জুন ডালখোলা পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের করোনা আক্রান্ত এক বাসিন্দার মৃত্যু হয় শিলিগুড়িতে। এরপরেই তৎপরতার সঙ্গে ডালখোলায় ২০০ জনের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। এরই মধ্যে ১৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মিলেছে বলে জানিয়েছেন, ডালখোলা পুর প্রশাসক সুভাষ গোস্বামী।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের করোনা বুলেটিন সূত্রে জানা গেছে, উত্তর দিনাজপুর জেলায় এখনও ৩৪৬ জনের দেহে কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ মিলেছে। এরমধ্যে ২৭৬ জন এখনও পর্যন্ত করোনাকে পরাজিত করে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬৯ জন। ২৬ জুন থেকে চালু হওয়া রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের এখনও পর্যন্ত ২২৮২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ডালখোলা পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের প্রধান সুভাষ গোস্বামী বলেন, “করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তেই পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে শহরের ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সহ সাতদিন দোকান, বাজারঘাট বন্ধ রাখার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ