স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ফের করোনাভাইরাসের হানা শাসক দলের অন্দরে। এবার আক্রান্ত হলেন মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জের বিধায়ক মহম্মদ আখরুজ্জামান। বৃহস্পতিবার তাঁকে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় আনা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, রবিবার থেকেই জ্বর- সহ করোনার একাধিক উপসর্গ ছিল তাঁর। তাই ঝুঁকি না নিয়ে জঙ্গিপুর হাসপাতালে ডেঙ্গু, টাইফয়েড, ম্যালেরিয়া ও করোনা পরীক্ষাও করান আখরুজ্জামান। বৃহস্পতিবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে আসতেই জানা যায়, তিনি কোভিড আক্রান্ত। এই খবর পাওয়া মাত্রই পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম যোগাযোগ করেন সঙ্গে আখরুজ্জামানের সঙ্গে। এরপর তাঁকে কলকাতায় নিয়ে আসা হয়। জানা গিয়েছে, বিধায়কের স্ত্রী-সন্তানদেরও নমুনা পরীক্ষার জন্য কলকাতায় নিয়ে আসা হয়েছে।

তবে শাসকদলে করোনা সংক্রমণের ভীতি এই প্রথম নয়। তৃণমূলে প্রথম করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ফলতার তৃণমূল বিধায়ক তথা সর্বভারতীয় তৃণমূল বিধায়ক তমোনাশ ঘোষ। কয়েকদিন আগে তিনি মারা গিয়েছেন।

এছাড়া, করোনা সংক্রমিত হয়েছিলেন রাজ্যের দমকলমন্ত্রী তথা বিধাননগরের বিধায়ক সুজিত বসুও। যদিও তিনি এখন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে এসেছেন।

বিধানসভার মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ করোনা আক্রান্ত হন। এছাড়াও শাসকদলের অনেককেই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। সবমিলিয়ে করোনা উদ্বেগ তৃণমূলের অন্দরে ক্রমশ বাড়চ্ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ