বালুরঘাট: একদা গ্রিন জোনে থাকা দক্ষিণ দিনাজপুরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো পাঁচ। শুক্রবার জেলা প্রশাসনিক ভবন সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জেলায় নতুন করে আরও একজনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ ধরা পড়েছে। সব মিলিয়ে দক্ষিণ দিনাজপুরে করোনা পজেটিভের সংখ্যা পাঁচ হয়েছে।

আক্রান্তদের চার জনেরই বাড়ি কুশমন্ডি ব্লকের দেহবন্দ তেলিপুকুর দিকুল ও নন্দপুর এলাকায়। বাকি একজনের বাড়ি কুমারগঞ্জের মোহনা এলাকায়। প্রত্যেকেই ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতেন। আক্রান্তদের মধ্যে কুশমন্ডির দিকুল ও কুমারগঞ্জের মোহনার মোট দুইজনকে বালুরঘাটের প্রয়াস আত্রেয়ী কোবিদ হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা চলছে। বাকি তিনজন ভর্তি রয়েছেন রায়গঞ্জের মিকিমেগা কোবিদ হাসপাতালে।

পজেটিভ পাঁচ জনের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সম্পর্কযুক্তদের কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যথাযোগ্য চিকিৎসা ব্যবস্থা ইতিমধ্যেই করেছে প্রশাসন। এলাকাগুলিতে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে নিয়মানুযায়ী যা যা ব্যবস্থা নেওয়ার তার সমস্ত কিছুই নিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

না প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা প্রশাসনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মালদহ মেডিক্যাল কলেজে গত ১৬মে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুশমন্ডির প্রথম তিন জনের নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ ধরা পড়ে। পরবর্তীতে ২১মে কুশমন্ডির আরও একজন এবং পরদিন ও ২২মে’তেও কুমারগঞ্জের একজনের নমুনায় পজেটিভ মিলেছে। সব মিলিয়ে জেলায় শুক্রবার পর্যন্ত মোট পাঁচ জন করোনা পজেটিভ পাওয়া গিয়েছে। তিনি একথাও জানান যে জেলার প্রায় চার হাজার জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। তার মধ্যে প্রায় ছয়শো জনের নমুনা এখনও পরীক্ষা সম্পন্ন হয়নি।