কলকাতা: করোনায় আক্রান্ত একাধিক ব্যাংক কর্মী। বিধাননগরের স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার একটি শাখায় ২১জন কর্মী করোনা আক্রান্ত বলে খবর৷ অন্যদিকে পার্কস্ট্রিট শাখাতেও ১ জন কর্মী আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে৷ ফলে ওই দুটি শাখাই আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

সূত্রের খবর, বিধাননগরে এসবিআই এর আঞ্চলিক অফিসের ২১ কর্মী করোনা আক্রান্ত৷ এখনও ৯০ জনের রিপোর্ট আসা বাকি৷ আশঙ্কা করা হচ্ছে পুরোপুরি রিপোর্ট আসলে, আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার বিধাননগর শাখার কর্মরত শতাধিক কর্মীর করোনা পরীক্ষা করানো হয়৷

তাদের মধ্যে অনেকের রিপোর্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হাতে আসে৷ তা দেখে চক্ষু চড়কগাছ ব্যাংক কর্তৃপক্ষের৷ ব্যাংকের ওই শাখার ২১ জন কর্মীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ৷ এখনও ৯০ জনের রিপোর্ট আসা বাকি রয়েছে৷ কীভাবে একটি শাখায় এত জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হলেন সেটাই ভাবাচ্ছে ব্যাংককে। অন্যদিকে ওই শাখা বাকি কর্মীদের রিপোর্ট পাওয়া গেলে সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আপাতত ২১ জনের শরীরে সংক্রমণ দেখা দেওয়ার পরেই ওই শাখা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ।এর আগেও অনেক ব্যাংক কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন৷ কিন্তু অনেকে সুস্থও হয়ে উঠেছেন৷ কিন্তু এক সঙ্গে ২১ জন সম্ভবত এই প্রথম৷ অন্যদিকে স্টেট ব্যাংকের পার্ক স্ট্রিট শাখাতে একজন কর্মীর শরীরে পাওয়া গিয়েছে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি। ওই রিপোর্ট হাতে আসতেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শাখাটি।

অন্যদিকে, বাংলায় ক্রমশ করোনা নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।

বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৯ জন৷ ফলে এই পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ২০ হাজার৷ শুক্রবার রাজ্য সরকারের বুলেটিন অনুযায়ী,গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬৯ জন৷ গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ৬৪৯ জনে৷

কিন্তু এই পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০,৪৮৮ জন৷ নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের৷ ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭১৭ জনে৷ তবে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৬২০০ জন৷ গতকাল ছিল সংখ্যাটা ছিল ৬,০৮৩ জনে৷ অর্থাৎ একদিনে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বাড়ল ১১৭ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ৫৩৪ জন৷ ফলে এই পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩,৫৭১ জন৷ যা শতাংশের হিসেবে ৬৬.২৩ শতাংশ৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ