ঢাকা: বাংলাদেশে ক্রমশ করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগ জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছে। আর এরই মাঝে আজ সোমবার ঈদ। সামাজিক দূরত্ব মেনে নমাজ পড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ঈদের আগে ইফতার পাটিতে ঘটল বিপদের ঘটনা। বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তি ইফতার পার্টিতে অংশ নিয়ে বিপদ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশে।

জানা গিয়েছে, ওই পার্টিতে অংশ নেওয়া সবাইকে ইতিমধ্যে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। গোটা এলাকাতে ১০টি বাড়ি রয়েছে। সম্পূর্ণ ভাবে লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মানিকগঞ্জের সিংগাইরে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উপজেলার পুরসভার গোলড়া মহল্লার পশ্চিমপাড়ার এক ব্যক্তির করোনার লক্ষণ দেখা দেয়।

এরপর মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে টেস্টের জন্য নমুনা দেন তিনি। শনিবার তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিন্তু এর মধ‍্যে শুক্রবার প্রতিবেশীর বাড়িতে আয়োজিত ইফতার পার্টিতে যোগ দেন ওই ব্যক্তি। এতে অনেকেই তার সংস্পর্শে আসে। ফলে মনে করা হচ্ছে ওই এলাকায় ব্যাপক ভাবে ছড়াতে পারে মারণ এই ভাইরাস। আর সেজন্যে ইতিমধ্যে একগুচ্ছ কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের ভয়াল হামলায় বিশ্ব কুঁকড়ে দিয়েছে। চলছে মৃত্যু মিছিল। এই অবস্থায় ফের একবার সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ পালনের জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্ববাসীকে বার্তা দিয়েছেন শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে বলেন, আপনার সুরক্ষা আপনার হাতে, মনে রাখবেন আপনি সুরক্ষিত থাকলে আপনার পরিবার সুরক্ষিত থাকবে, প্রতিবেশী সুরক্ষিত থাকবে, দেশ সুরক্ষিত থাকবে। করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে বাড়ছে মৃত্যু।

স্বাস্থ্য অধিদফতর এবং ওয়ার্ল্ডোমিটার জানাচ্ছে, বাংলাদেশে গত করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪৮০ জন। মোট করোনা রোগী ৩৩ হাজারের বেশি। মৃত ও সংক্রামিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছেই। এই অবস্থায় সামাজিক দূরত্বের নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ঘরমুখো ভিড়ের ঠেলায় বাংলাদেশে প্রবল সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব