কলকাতা: বাংলায় একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৪০০ ছাড়াল৷ নতুন করে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে৷
শুক্রবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিনে প্রকাশ,রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪২৭ জন৷ এই প্রথম একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৪০০ ছাড়াল৷ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭ হাজার ছাড়াল৷

বাংলায় নতুন করে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৩৬৬ জন। এর মধ্যে কো মর্বিডিটির কারণে মৃত্যু হয়েছে ৭২ জনের। তবে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়াল৷

এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৭ হাজার ৩০৩ জন৷ তবে সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ৪,০২৫ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪৪ জন৷ ফলে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২,৯১২ জন৷ যা শতাংশের হিসেবে ৩৯.৮৭ শতাংশ৷

নতুন করে যে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে কলকাতার ৪ জন৷ ফলে শহরে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৩৮ জনে৷ এদের মধ্যে কো মর্বিডিটির কারণে মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের৷

হাওড়ায় নতুন করে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ এর ফলে সেখানে কো মর্বিডিটিসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪৬ জন৷ এবং উত্তর ২৪ পরগনার নতুন ২ জনকে নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যাটা ৪৯৷ এছাড়া এদিন হুগলিতে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

যে চার জেলায় নতুন করে মৃত্যু হয়েছে,সেই সব জেলায় আক্রান্তের সংখ্যাটা হল- কলকাতায় গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১০১ জন৷ শহরে এই পর্যন্ত আক্রান্ত ২,৫৮৯ জন৷ হাওড়ায় নতুন করে আক্রান্ত ৬২ জন,মোট ১,৩২৬ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনায় একদিনে আক্রান্ত ৬৫ জন,মোট ৯৭৫ জন৷ এছাড়া হুগলিতে নতুন করে আক্রান্ত ৪৪ জন৷ মোট আক্রান্ত ৪৭৩ জন৷

বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত ৯,৬৮৬ টি টেস্ট হয়েছে৷ ফলে এই পর্যন্ত মোট টেস্ট হয়েছে ২ লক্ষ ৫১ হাজার ৫১৭ জন৷ প্রতি মিলিয়নে ২,৭৯৫ জন৷ যা শতাংশের হিসেবে ২.৯০ শতাংশ৷ বর্তমানে রাজ্যে সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে ৪২টি পরীক্ষাগারে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে ৪,০২৫ জনের৷ রাজ্যের মোট ৬৯ টি কোভিড হাসপাতলে ৮৭৮৫ টি বেড রয়েছে আইসিইউ বেড আছে ৯২০টি। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯২টি।

শুক্রবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, শুরু থেকে এই পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যাটা ২ লক্ষ ৫৪ হাজার ৭৬০ জন৷ তাদের মধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ করেছেন ১ লক্ষ ২ হাজার ৯১২ জন৷ ফলে বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৮৪৮ জন৷

এছাড়া সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৫৯ হাজার ৭০০ জন৷ বর্তমানে ৫৮২ টি সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রয়েছেন মাত্র ২৩ হাজার ০৭৭ জন৷ গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ২০ হাজার ৬৬২ জন৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব