ফাইল ছবি

মুম্বই: ফের বলিডডে করোনার থাবা। করোনার মারণ গ্রাসে মারা গেলেন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় পরিচালক অনিল সুরি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। গত বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রবীণ এই প্রয়োজক। বলিউডে একাধিক জনপ্রিয় সিনেমার প্রযোজনা করেছেন তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া বলিউডে। বলিউডে একের পর এক মৃত্যুর খবরে আতঙ্ক।

অনিল সুরির পরিবারের তরফে সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, অনিল সুরির অবস্থা ধীরে ধীরে গুরুতর হয়। এরপরেই প্রথমে লীলাবতী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে করোনা আক্রান্ত শুনে ভর্তি নিতে অস্বীকার করা হয় বলে অভিযোগ পরিবারের।

এরপর সেখান থেকে হিন্দুজার মতো নামি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তাঁরাও হসপিটালে ভর্তি নিতে চায়নি বলে অভিযোগ। হিন্দুজা হাসপাতালের তরফে বলা হয়, কোনও বেড খালি নেই। এরপর মুম্বইয়ের অ্যাডভান্সড মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতালে অনিলকে ভর্তি করা হয় বলে জানিয়েছেন অনিলের ভাই।

তিনি আরও জানান, একের পর এক হাসপাতালে ঘরার কারণে দাদার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। দেওয়া হয় ভেল্টিলেটর। এরপর গত বৃহস্পতিবার অনিলের মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন তাঁর ভাই। শুক্রবার সন্ধেবেলা সুরি পরিবারের চার জন সদস্যর উপস্থিতিতে অনিলের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। তাঁর পরিবারের সবাইকেই পিপিকিট পরতে হয়েছিল।

কর্মযোগ, সহ একাধিক জনপ্রিয় সিনেমার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন অনিল সুরি।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রয়াত গায়ক-সঙ্গীত পরিচালক ওয়াজিদ খানের মা। সোমবার প্রয়াত হয়েছেন ওয়াজিদ। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, কিডনিতে ইনফেকশন ছিল ওয়াজিদের। কোভিড ১৯-এও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। যদিও হিন্দুস্থান টাইমস-এর প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে মৃত্যু হয় তাঁর। হাসপাতালে ছেলের সঙ্গে ছিলেন ওয়াজিদের মা-ও।

এই বিষয়ে আরও বিস্তারিত-  করোনা আক্রান্ত প্রয়াত ওয়াজিদ খানের মা-ও

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প