লন্ডন: তাঁকে দেখেই টেনিসে হাতেখড়ি৷ তাঁকে আদর্শ করেই ক্রমশ বেড়ে ওঠা৷ বয়সের কারণে এখনও স্কুলের গণ্ডিতেই আটকে রয়েছেন কোরি গাফ৷ তবু উইম্বলডনের মতো বড় মঞ্চে নিজের আদর্শ ভেনাস উইলিয়ামসকে হারাবেন, এটা বোধহয় স্বপ্নেও ভাবেননি মার্কিন কিশোরি৷

বয়স মাত্র ১৫৷ বাছাই পর্বের বাধা টপকে উইম্বলডনের মূলপর্বে উঠে এসে চমকে দিয়েছেন সকলকে৷ এত কম বয়সে গ্র্যান্ড স্লাম ইভেন্টের মূলপর্বে খেলার নজির সত্যিই বিরল৷ এর আগে মার্টিনা হিঙ্গিস ১৬ বছর বয়সে গ্র্যান্ড স্ল্যামের আঙিনায় পা দিয়েছিলেন৷ কোরি তাঁর থেকেও কম বয়সে উদিত হলেন মেজর টুর্নামেন্টের আঙিনায়৷ কোরি গাফকে এসডব্লু নাইন্টিনে ভেনাস উইলিয়ামসের ক্লোন বলে ডাকা শুরু হয়েছে৷ সেটা সঙ্গতও বটে৷ কেননা একঝলক দেখলে ছোটবেলার ভেনাস বলে ভুল হওয়া স্বাভাবিক৷

এহেন কোরি টুর্নামেন্টের মূলপর্বে উঠে এসে স্পষ্ট জানিয়েছিলেন যে, তিনি ভেনাসকে দেখেই টেনিসে এসেছেন৷ তাঁকে আদর্শ করেই বড় হওয়ার চেষ্টায় রয়েছেন৷ কেরিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডে সেই ভেনাসকে সামনে পাওয়া তাঁর কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার থেকেও বেশি৷ তখনও বোধ হয় ভাবেননি যে উইম্বলডনের প্রথম রাউন্ডে পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন ভেনাসকে হারিয়েই নিজের গ্র্যান্ড স্ল্যাম কেরিয়ার শুরু করবেন তিনি৷

ভেনাস বনাম কোরির লড়াইকে ‘জেনারেশন গেম’ হিসাবে বর্ণনা করা হচ্ছিল৷ একজনের বয়স মাত্র ১৫, যে কি না নিজের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্টের সিঙ্গলস কোর্টে নামছেন৷ অন্যজনের বয়স ৩৯, যিনি ইতিমধ্যেই ৮২টি মেজর টুর্নামেন্টের সিঙ্গলসে প্রতিনিধিত্ব করে ৭বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন৷ ডাবলস ও মিক্সড ডাবলসের হিসাব ধরলে ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি জিতেছেন ভেনাস৷ ফেড কাপ, অলিম্পিক, ট্যুর ফাইনালস, এমন কোনও বড় ট্রফি নেই যা ভেনাসের ক্যাবিনেটে শোভা পাচ্ছে না৷

এহেন ভেনাস কেরিয়ারের ৮৩ নম্বর গ্র্যান্ড স্লাম টুর্নামেন্ট তথা নিজের ২২ নম্বর উইম্বলডনের প্রথম রাউন্ডেই হেরে বসেন বিশ্বব়্যাংকিংয়ে নিজের থেকে (৪৪) ২৬৯ ধাপ পিছনে থাকা স্বদেশীয় কোরি গাফের (৩১৩) কাছে৷ ১ ঘণ্টা ১৯ মিনিটের লড়াইয়ে ভেনাসকে ৬-৪, ৬-৪ স্ট্রেট সেটে পরাস্ত করেন কোরি৷ স্বাভাবিকভাবেই উিম্বলডনে নতুন তারার জন্ম হল বলেই ধরে নিচ্ছে বিশেষজ্ঞমহল৷

জয়ের পর কোর্টেই কান্নায় ভেঙে পড়েন কোরি৷ পরে নিজের প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘বিশ্বাস হচ্ছে না এমনটা সত্যিই ঘটেছে৷ কখনই ভাবিনি এমন কিছু হতে পারে৷ এত বড় মঞ্চে এই প্রথমবার খেলতে নেমেছিলাম৷ শুধু ভেনাসকে বলার ছিল যে ওঁর জন্যই আজ আমি এখানে আসতে পেরেছি৷ ভাবিনি ম্যাচটা জিতে যাব৷ সব কিছু স্বপ্ন মনে হচ্ছে৷’

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প