নয়াদিল্লি: রোহিত শেখর হত্যাকাণ্ডের তদন্তে পুলিশ কর্তাদের সন্দেহের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে তার স্ত্রী অপূর্বা৷ এবার অপূর্বার নখ এবং চুলের নমুনা সংগ্রহ করে ফরেন্সিকে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হল৷ তা ছাড়া বাড়ির দুই চাকরেরও নখের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে৷ ঘটনার সময় তারা বাড়িতেই ছিল বলে জানা গিয়েছে৷

রোহিত হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নয়া মোড় আসার সম্ভবনা রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে৷ পুলিশ কর্তারা নিশ্চিত বাড়ির কেউ তার হত্যার সঙ্গে জড়িত৷ তদন্তকারীদের সন্দেহের তির রোহিতের স্ত্রীর দিকে সবচেয়ে বেশি৷

তদন্তে নেমে পুলিশ কর্তারা জানতে পারেন রোহিতের হত্যার প্রায় এক মাস আগে তার স্ত্রী অপূর্বা বাড়ি ছেড়ে বাপের বাড়ি চলে যায়৷ তাদের মধ্যে ঝামেলার হয়েছিল বলে জানতে পারে পুলিশ৷ তবে ১৫ দিন আগে হঠাৎ সে রোহিতের কাছে ফেরে৷ এমনকি তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছিল৷ আগামী জুন মাসে সেই মামলার রায় বেরোনোর কথা ছিল বলেও জানা গিয়েছে৷ তবে অন্য কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন কিনা তাও তদন্ত করে দেথা হচ্ছে৷

কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা নারায়ণ দত্ত তিওয়ারির ছেলে রোহিত তিওয়ারির খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ তদন্তে নেমে বাড়ির কেউ জড়িত রয়েছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করে পুলিশ৷ এই খুনের কিনারা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন পুলিশ কর্তারা৷