নয়াদিল্লিঃ  সাধারণ বাজেটের আগে সাধারণ মানুষের জন্য সুখবর! একই সঙ্গে অবশ্যই স্বস্তির খবরও। দাম কমল গার্হস্থ্য এলপিজি সিলিন্ডারের৷ যা কিনা একধাক্কায় অনেকটাই।

গত একমাস আগে ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম বাড়িয়ে বিরোধীদের সমালোচনার মুখে পড়েছিল সদ্য দ্বিতীয় ইনিংশ শুরু করা মোদী সরকার৷ কিন্তু ঠিক একমাসের মাথায় সারপ্রাইজ পেল আম-আদমি৷ আজ সোমবার ১ জুলাই থেকে ভর্তুকিহীন রান্নার গ্যাসের দাম ১০০.৫০ টাকা কমছে৷ রবিবার ইন্ডিয়ান অয়েল এক বিবৃতি দিয়ে এই দাম হ্রাসের কথা ঘোষণা করেছে। এর ফলে ভর্তুকি ছাড়া রান্নার গ্যাসের দাম সিলিন্ডার প্রতি ৭৩৭.৫০ টাকা থেকে এক ধাক্কায় কমে দাঁড়ালো ৬৩৭ টাকা। এক ধাক্কায় এতটা দাম কমে যাওয়াতে অবশ্যই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে মধ্যবিত্ত।

ইন্ডিয়ান ওয়েলের তরফে জারি করা এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে তরল এলপিজির বাজারমূল্য এবং টাকা ও ডলারের রূপান্তরের দর কমায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মূলত বাড়ির কাজে ব্যবহার করা এলপিজির দামে ভর্তুকি দেয় কেন্দ্রীয় সরকার, ফলে সেই গ্যাসের দাম কমে হবে ৪৯৪.৩৫ টাকা। বাকি ১৪২.৬৫ টাকা ভর্তুকি হিসেবে দেওয়া হবে। সেই টাকা গ্রাহকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সরাসরি জমা হবে, বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ইন্ডিয়ান ওয়েলের তরফে।

উল্লেখ্য, গত ১ জুন থেকে রাষ্ট্রায়ত্ব তেল সংস্থাগুলি ভর্তুকিহীন রান্নার গ্যাসের দাম বাড়িয়েছিল সিলিন্ডার প্রতি ২৫টাকা৷ ফলে কলকাতায় ভর্তুকিবিহীন রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম বেড়ে হয়েছিল ৭৬৩ টাকা ৫০ পয়সা৷ বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দামে বৃদ্ধির জেরেই বেড়ে গিয়েছে রান্নার গ্যাসের দাম৷ গৃহস্থালীর কাজে ব্যবহৃত রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারে ১৪.২ কেজি এলপিজি থাকে। ভর্তুকিযুক্ত গ্যাসের দাম হল সিলিন্ডার প্রতি ৪৯৪.৩৫ টাকা৷ অন্যদিকে, ১৯ কিলো নন-ডমেস্টিক সিলিন্ডারের দাম ১৮৭ টাকা ৫০ পয়সা কমালো রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি। এর ফলে নতুন দাম হয়েছে ১১৮৮ টাকা ৫০ পয়সা।