নয়াদিল্লি: বিমান বন্দরের ডিউটি ফ্রি দোকান থেকে কোনও ব্যক্তি করমুক্ত মদ কেনার ক্ষেত্রে এবার আরও নিয়ন্ত্রণ আসতে পারে৷ বাণিজ্য মন্ত্রক সুপারিশ করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের কাছে ৷ সেই প্রস্তাব মেনে এবারের বাজেটে নির্মলা তেমন ঘোষণা করতে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রের খবর। তাছাড়া বিমানবন্দরের ওই ডিউটি ফ্রি দোকানগুলিতে সিগারেট বিক্রির ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করার প্রস্তাব দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রক।

দেশের সীমাশুল্ক আইনের অনুসারে বিমানবন্দরে ডিউটি ফ্রি দোকানগুলি থেকে যদি কেউ কোনও জিনিস কেনে তখনওই পণ্যের উপর গ্রাহককে কোনও কর দিতে হয় না ৷ প্রাইভেট ওয়্যারহাউস হিসাবে সেখানে করমুক্ত পণ্য বিক্রির লাইসেন্স দেওয়া হয়।

এদিকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের কাছে বাণিজ্যমন্ত্রক এই বিষয়ে প্রস্তাব পাঠায় ৷ বর্তমানে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলিতে ডিউটি ফ্রি দোকানগুলি থেকে কোনও ব্যক্তি ২ লিটার মদ কিনতে পারত এবার সেটা কমিয়ে ১ লিটার করার প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

যা দেশের পরিস্থিতি তাতে বাণিজ্য মন্ত্রক চাইছে বিদেশ থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় নয় এমন কোনও পণ্য আমদানি কমাতে৷ আর সেই উদ্যোগের অঙ্গ হিসাবে সিগারেট বিক্রিতেও নিষেধাঙ্গার প্রস্তাব অর্থমন্ত্রকের কাছে পাঠানো হয়েছে। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক ওই প্রস্তাব মেনে নিলে ১ ফেব্রুয়ারি বাজেট পেশের সময় ঘোষণা হতে পারে- বিমানবন্দরের ডিউটি ফ্রি দোকানগুলি থেকে সিগারেট বিক্রি নিষিদ্ধ৷ ওই ডিউটি ফ্রি দোকান থেকে সর্বাধিক ২০ প্যাকেট সিগারেট কিনতে পারা যায় এখন। আর মদ এবং সিগারেট বাবদ সর্বাধিক ৫০,০০০ টাকার পণ্য কর ছাড়া কেনা যায়৷