পূর্ব মেদিনীপুর: মারণ ভাইরাস করোনার প্রকোপ ঠেকাতে রাজ্যের সব কনটেইনমেন্ট জোন গুলিতে ফের লক ডাউন কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। আগামী সাতদিনের জন্যে কড়া নজরদারি চালানো হবে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টা থেকে কনটেইনমেন্ট জোন গুলিতে কঠোর ভাবে লকডাউন কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তের সঙ্গেও পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ৫টি কনটেইনমেন্ট জোনে কড়া লকডাউন বলবৎ হতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে প্রশাসন সূত্রে। যদিও এলাকাগুলিতে জরুরি পরিষেবা, অত্যাবশ্যকীয় পণ্য পরিবহন ছাড়া অন্য সকল ধরনের পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কনটেইনমেন্ট জোনে থাকা বাসিন্দারা সরকারি ও বেসরকারি অফিসে যেতে পারবেন না বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে রাস্তায় না বের হওয়ার জন্যে বলা হয়েছে। খুব প্রয়োজন হলে মাস্ক নিয়েই বের হতে হবে বলে জানা যাচ্ছে।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ৫টি কনটেইনমেন্ট জোন হল – ১.তাম্রলিপ্ত পৌরসভা – ৭ নং ওয়ার্ড (পদ্মুবসান গ্রাম) ২.হলদিয়া পৌরসভা – ১০ নং ওয়ার্ড (শীঠ পাড়া) ৩.হলদিয়া ব্লক (দেউলপোতা পঞ্চায়েতের বাড়বাসুদেবপুর গ্রাম) ৪. শহীদ মাতঙ্গীনি ব্লক (ধলহারা পঞ্চায়েতের ধলহারা উত্তর পাড়া) ৫.মহিষাদল (লক্ষ্যা-১ পঞ্চায়েতের লক্ষ্যা গ্রাম)

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা থেকে ফের লকডাউন কলকাকাতায়। চিহ্নিত করা হল ২৫টি জোন। তারমধ্যে রয়েছে বড় রাস্তা, বস্তি, আবাসন। এক নজরে রইল সেই তালিকা। কলকাতা-সহ দুই ২৪ পরগনার কয়েকটি এলাকায় বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার।

ওই এলাকাগুলিতে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণেই আরও কড়াকড়ির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত ৭ দিনের জন্য ওই এলাকাগুলিতে নজরদারি চলবে। ৭ দিন পর পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তী পদক্ষেপ করবে রাজ্য সরকার।

এপ্রসঙ্গে বুধবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যেহেতু কয়েকটা জায়গায় আক্রান্ত পাচ্ছি, তাই কন্টেনমেন্ট জোন। আপাতত ৭ দিনের জন্য কড়া নজরদারি চলবে। ৭ দিন পর পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

এরই পাশাপাশি করোনার সংক্রমণ রুখতে আবারও মাস্ক পরায় জোর দেন মুখ্যমন্ত্রী। মাস্ক ছাড়া বাইরে বেরোলে পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘মাস্ক ছাড়া বেরোবেন না। মাস্ক পরে না বেরোলে বাড়ি ফেরত পাঠাবে পুলিশ।’

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ