শ্রীনগর: ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্তে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় বাংকার বানাচ্ছে ভারত৷ জম্মু ডিভিশনের তরফে এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে৷ পাকিস্তানের আক্রমণ থেকে নাগরিকদের বাঁচাতে এই বাংকার তৈরি করা হচ্ছে৷ ইতিমধ্যেই পুঞ্চ ও রাজৌরি জেলায় ৭ হাজার ২৯৮টি বাংকার তৈরি হয়ে গিয়েছে৷ ৭ হাজার ১৬২টি বাংকার তৈরি বাকি রয়েছে৷

সরকারি সূত্রে খবর, মোট ১৪ হাজার ৪৬০টি বাংকার তৈরি হচ্ছে৷ এর জন্য খরচ পড়ছে ৪১৫.৭৩ কোটি টাকা৷ আন্তর্জাতিক সীমানা ও নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর বাংকারগুলি তৈরি করা হবে৷ এর মধ্যে ১৩ হাজার ২৯টি ব্যক্তিগত বাংকার ও ১ হাজার ৪৩১টি গোষ্ঠীগত বাংকার৷ ১৬০ স্কোয়্যার ফিটের ব্যক্তিগত বাংকারে থাকতে পারবে ৮ জন৷ ৮০০ স্কোয়্যার ফিটের গোষ্ঠীগত বাংকারে ৪০ জনের থাকার জায়গা থাকছে৷

নিরাপত্তার স্বার্থে জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে বসছে ৫,৩৯০ বাংকার রাজৌরিতে ৪ হাজার ৯১৮টি ব্যক্তিগত বাংকার ও ৩৭২টি গোষ্ঠীগত বাংকার তৈরি হচ্ছে৷ খাটুয়া জেলায় তৈরি হচ্ছে ৩ হাজার ৭৬টি ব্যক্তিগত বাংকার ও ১২০টি গোষ্ঠীগত বাংকার৷ পুঞ্চ জেলায় ব্যক্তিগত বাংকারের সংখ্যা ১ হাজার ৩২০ টি, গোষ্ঠীগত বাংকারের সংখ্যা ৬৮৮টি৷ জম্মুতে ১ হাজার ২০০টি ব্যক্তিগত বাংকার ও ১২০টি গোষ্ঠীগত বাংকার তৈরি হচ্ছে৷ সাম্বা জেলায় তৈরি হচ্ছে ২ হাজার ৫১৫টি ব্যক্তিগত ও ৮টি গোষ্ঠীগত বাংকার৷

ভারত-পাকিস্তানের সীমানার দৈর্ঘ্য ৩ হাজার ৩২৩ কিলোমিটার৷ এর মধ্যে ২২১ কিলোমিটার আন্তর্জাতিক সীমা ও ৭৪০ কিলোমিটার নিয়ন্ত্রণ রেখা৷ দুই দেশের মধ্যে গুলি বিনিময়ের সময় সমস্যায় পড়েন এলাকার বাসিন্দারা৷ সেজন্যেই এই সিদ্ধান্ত মোদী সরকারের।