পানাজী: গোয়ায় সরকার গঠনের দাবি জানাল কংগ্রেস৷ মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্করের অসুস্থতা ও সম্প্রতি শাসকদলের বিধায়ক ফ্রান্সিস ডি’সুজার মৃত্যু পর রাজ্যে সরকার গঠনে ফের সক্রিয় হয়ে ওঠে রাহুল গান্ধীর দল৷ সময় নষ্ট না করে রাজ্যপাল মৃদুলা সিনহাকে চিঠি লিখে সংখ্যালঘু বিজেপিকে সরিয়ে সরকার গঠনের জন্য একক বৃহত্তম দল কংগ্রেসকে আহ্বান করার দাবি জানান বিরোধী দলনেতা চন্দ্রকান্ত কাভলেকর৷

এদিন রাজ্যপালকে চিঠি লিখে বিরোধী দলনেতা রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা নিয়েও সতর্ক করে দেন৷ চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্করের অসুস্থতার কথা উল্লেখ করে চন্দ্রকান্ত কাভলেকর লেখেন, তিনি অনেক আগেই মানুষের আস্থা হারিয়েছেন৷ আর বিধায়ক ফ্রান্সিস ডি’সুজার মৃত্যুর পর বিধানসভাতেও সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছেন৷ চিঠিতে তিনি আভাস দেন বিজেপির অনেক নেতাই দোলাচলে আছেন৷ ফলে আগামী দিনে তারা শিবির বদলাতে পারেন৷ তাই এমন সংখ্যালঘু সরকারকে ক্ষমতায় থাকার সুযোগ দেওয়া উচিত নয়৷

এছাড়া জম্মু কাশ্মীরের মতো রাজ্যপাল যদি রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করে দেন সেই চিন্তা মাথায় আছে কংগ্রেসের৷ চিঠিতে বিরোধী নেতা লেখেন,রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হলে তা অনৈতিক ও আইনবিরুদ্ধ সিদ্ধান্ত হবে৷ কংগ্রেস তখন রাজ্যপালের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানাবে৷

দুই বিধায়কের ইস্তফা ও একজনের মৃত্যুর পর বিধানসভার আসন ৪০ থেকে কমে হয়ে যায় ৩৭৷ বিজেপি বিধায়ক ফ্রান্সিস ডি’সুজার মৃত্যুর পর কংগ্রেস গোয়ায় একক বৃহত্তম দল৷ তাদের বিধায়ক সংখ্যা ১৪৷ অপরদিকে বিজেপির হাতে ১২ জন বিধায়ক আছে৷ গত বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস বিজেপির কাছে হেরে যায়৷ এরপর নির্বাচনের পর তিন কংগ্রেস বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দেয়৷ তাদের যোগদানে এবং অন্যান্য দলগুলির সমর্থনে মসৃণভাবে সরকার গঠন করে বিজেপি৷