স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ২৪ ঘন্টাও বাকি নেই ভোটের৷ তার আগেই বিজেপিকে ভোট দিতে বলে বিতর্ক বাড়ালেন কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী৷

মালদহ দক্ষিণের বিদায়ী সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী৷ সম্পর্কে তিনি প্রয়াত গনি খানের ভাই৷ ২০০৯ থেকেই এই কেন্দ্রের প্রার্থী তিনি৷ এবারও ভোটে লড়ছেন ডালুবাবু৷ প্রতিপক্ষ জোড়াফুল৷

আরও পড়ুন: মোদীকে জেতাতে ‘সাইকেল’ চিহ্নে ভোট দেওয়ার অনুরোধ বিজেপি নেতার

শেষ প্রচারে কংগ্রেসের প্রার্থী আবু হাসেম খান মঞ্চে জোর তৃণমূল ও বিজেপির বিরোধীতা করছিলেন৷ ফাঁকে একসময় তিনি বলেন, ‘‘বিজেপিকে ভোট দিন৷’’ এই মন্তব্যে উপস্থিত কংগ্রেস নেতা, কর্মীদের চক্ষু ছানাবড়া৷ কী বলছেন প্রার্থী! সভায় উপস্থিত ভোটাররা ব্যস্ত নানা জল্পনায়৷

তাহলে কী তৃণমূলকে ঠেকাতে মালদা দক্ষিণে হাত পদ্মের জোট হয়েছে আড়ালে আবডালে? মুখ ফস্কে প্রার্থী নিজেই যা ফাঁস করে দিলেন৷ প্রশ্ন করতেই অবশ্য কিছুটা অপ্রস্তুত মুখেই সাফাই দিতে শরু করেন ওই কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী ডালুবাবু৷ তিনি বলেন, ‘‘তৃণমূল ও বিজেপি মালদায় এক হয়ে কাজ করছে৷ তাই বলেছি কংগ্রেস, সিপিএমকে ভোট না দিলে তৃণমূলকেও দেবেন না৷ আর তৃণমূলকে যদি দিতেই হয় তবে বিজেপিকে দিন৷ ওরা একই৷’’

আরও পড়ুন: হিন্দু শরণার্থীদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই, আশ্বাস অমিত শাহের

বিরোধী শিবিরের ভোট ভাগাভাগি করার জন্যই কী এই কৌশল কোতোয়ালির ছোট কর্তার? আবু হাসেম খানের ছেলে ও উত্তর মালদহের কংগ্রেস প্রার্থী ইশা খানের জবাব, ‘‘এর মধ্যে অস্বাভাবিকতার কিছু নেই৷ বাবা আসলে বোঝাতে চেয়েছিল তৃণমূল আঞ্চলিক দল৷ তাই লোকসভা ভোটে ওদের ভোট দিয়ে লাভ নেই৷ সরকার গঠন করবে হয় বিজেপি, নয়তো কংগ্রেস৷ আর বিজেপি ও কংগেরেস এক হয়ে গিয়েছে এখানে৷ তাই কংগ্রেসকে ভোট না দিলে বিজেপিকে দিলেও যা হবে, তৃণমূলকে দিলেও একই হবে৷’’

কংগ্রেস প্রার্থীর বেফাঁস মন্তব্যে মুখে কুলুপ গেরুয়া প্রার্টির৷ প্রকাশ্য প্রচারের সময় শেষ৷ তাই তৃণমূল অবশ্য বিষয়টিকে কৌশলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভোটারদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে৷ কংগ্রেস বিজেপি যে রাজ্যে এক তা বোঝানোর চেষ্টা করছে৷ অনেকেই বলছেন, সাফাই যাই হোক ভোটের আগে গনি খানের ছোট ভাইয়ের বিতর্কীত মন্তব্যে আপাতত জমে গিয়েছে মালদহের রাজনীতি৷

দেশের ভিত শক্ত করতে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আহ্ববান কংগ্রেস প্রার্থীর

দেশের ভিত শক্ত করতে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আহ্ববান কংগ্রেস প্রার্থীরবিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন https://bit.ly/2vcVG6G

Kolkata24x7 यांनी वर पोस्ट केले सोमवार, २२ एप्रिल, २०१९