হরিয়ানা: মধ্য প্রদেশ এবং রাজস্থানের মতই হরিয়ানাতেও কংগ্রেস এবং বিএসপির মধ্যে জোট হতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। এই বছরের শেষের দিকে হরিয়ানা তে শুরু হবে নির্বাচন আর সেই নির্বাচনে বিজেপি কে হারানোর জন্যই এই দুই দল জোট বাধছে বলে সংবাদ মাধ্যমের তরফে জানা গিয়েছে।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে , হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভুপিন্দর সিং হুদা এবং কংগ্রেসের এক অভিজ্ঞ নেত্রী কুমারি সেলজা বিএসপি নেত্রী মায়াবতির সঙ্গে রবিবার রাতে দেখা করেন। এই সাক্ষাৎ হরিয়ানার রাজনৈতিক মহলে এক নতুন দিকের জন্ম দিল কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেয়।

মায়াবতির হরিয়ানার নির্বাচনে ৯০ টি আসনে কোন রকম রাজনৈতিক জোট ছাড়া লড়ার ঘোষণা করার পরেই এই ঘটনা ঘটতে দেখা গিয়েছে।

যদিও ভারতীয় সমাজবাদী পার্টি দুশ্মন্ত চৌতালার জননায়ক জনতা পার্টির সঙ্গে জোট করে নির্বাচন লড়ার কথা ঘোষণা করে। যদিও রাজ্যর নির্বাচনের আগেই এই জোট ভেঙে যায়।

এই জোট ভেঙে যাওয়ার পরে মায়াবতী জানিয়েছিলেন তারা নির্বাচনে একাই লড়বেন। চৌতালা জানিয়েছিলেন তারা বিএসপিকে ৪০ টি আসনে লড়ার কথা বললে মায়াবতী তা মানতে চাননি।

নির্বাচন ঘিরে হরিয়ানার রাজনৈতিক তরজা এখন তুঙ্গে। নির্বাচন ঘিরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রবিবার থেকে তার দলের প্রচার শুরু করেন। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে হরিয়ানার ১০ টি আসন থেকে জয় পাওয়ার কারনে তিনি সেখানকার মানুষদের ধন্যবাদ ও জানান।

রোহতাকে দলের প্রচার থেকে প্রধানমন্ত্রী জনগনের উদ্দেশে বলেন “২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে হরিয়ানা থেকে ১০ টি আসনে জয় পাওয়ার জন্য অশেষ ধন্যবাদ। এই নিয়ে তৃতীয়বার রোহতাকে এলাম। আর এবারে আপনাদের থেকে আরও সমর্থন পাওয়ার আশাতে এসেছি এবং আমি যা চাই রোহতাক তার থেকে অনেক বেশী আমাকে দেয়”।