নয়াদিল্লি: সরাসরি বিজেপিতে না এলেও এনডিএ শিবিরেই ভিড়েছেন সদ্য কংগ্রেসত্যাগী প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী৷ এতেই আহ্লাদিত গেরুয়া শিবির৷ প্রিয়াঙ্কার শিবসেনায় যোগদানের মধ্যে কংগ্রেসের পরাজয়ের ছবি দেখতে পাচ্ছে বিজেপি৷ দলের প্রথম সারির নেতা শাহনওয়াজ হুসেন জানিয়ে দিয়েছেন, কংগ্রেসের জাহাজ ডুবছে৷ প্রাণে বাঁচতে জাহাজ বদলেছেন প্রিয়াঙ্কা৷

এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেসের সমালোচনায় মুখ খোলেন হুসেন৷ কটাক্ষ করে বলেন, ‘‘কংগ্রেসের জাহাজ ডুবছে৷ আর সেই ডুবন্ত জাহাজে কেউ থাকতে চাইছে না৷ সবাই জাহাজ থেকে লাফ মারছে৷ কংগ্রেস মুখপাত্র সেই কারণে দল ত্যাগ করেছেন৷’’

দুই দফার ভোট হয়ে গিয়েছে৷ বাকি আরও পাঁচ দফা৷ বিজেপি নেতার দাবি, দুই দফার ভোটেই ছবিটা পরিস্কার৷ পাল্লা ভারি মোদীর দিকে৷ শাহনওয়াজ হুসেন বলেন, ‘‘দুই দফার ভোটে বোঝা গিয়েছে দেশজুড়ে এখন মোদী ঝড় বজায় আছে৷ বিরোধীরাও সেটা বুঝে গিয়েছে৷ তাই বিরোধীতা ভুলে সপা-বসপা একজোট হয়েছে৷ মায়াবতী ও মুলায়ম সিংকে একমঞ্চে দেখা গিয়েছে৷’’ বিজেপি নেতার দাবি, মায়াবতী ও মুলায়ম দু’জনেই দুর্নীতিগ্রস্ত৷ তাঁরা কাছাকাছি এসেছে মোদী হাওয়ার ভয়ে৷

কংগ্রেসকে জোর ধাক্কা দিয়ে এদিনই দল ছাড়লেন প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী৷ যোগ দেন শিবসেনায়৷ এমন সময় শিবির বদলান তিনি যখন দেশে চলছে লোকসভা ভোট৷ সূত্রের খবর, নেতৃত্বের প্রতি হতাশ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। গত বছরই দলের যেসব কর্মীদের তাড়িয়ে দেওয়া হয় তাঁর সঙ্গে অশালীন আচরণের জন্য, তাঁদেরই আবার পুনর্বহাল করা হয়েছে বলে অভিযোগ প্রিয়াঙ্কার। কমিটির ফজলে মাসুদ স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, “দলীয় ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য আপনি কিছু করবেন না বলে আশা করা হচ্ছে।” প্রিয়াঙ্কা প্রবীণ নেতাদের প্রতি তাঁর হতাশা প্রকাশ করেছিলেন।