বিশ্বজিৎ ঘোষ, কলকাতা: ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে ৪২টি আসনে প্রার্থী দিতে চাইছে পশ্চিমবঙ্গের শিবসেনা৷ অথচ, এ রাজ্যে শিবসেনার অবস্থা কার্যত প্রদেশ কংগ্রেসেরই মতো৷ এমনই বলছে ওয়াকিবহাল মহলের বিভিন্ন অংশ৷

আর, এই ধরনের অবস্থার জন্য প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যত দোসর হিসাবেও রাজ্য শিবসেনাকে উল্লেখ করছে ওই সব অংশ৷ যদিও, রাজনৈতিক মহলের বিভিন্ন অংশ এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে চাইছে না৷ কিন্তু, ‘দোসর’ কেন বলা হচ্ছে?

ওয়াকিবহাল মহলের ওই সব অংশের তরফে এমনই ব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গে ২০১১-র বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস এবং কংগ্রেসের জোট ছিল৷ তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সরকারেও ছিল কংগ্রেস৷ পরে অবশ্য জোট ভেঙে যায়৷ এ দিকে, বিভিন্ন ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে প্রদেশ কংগ্রেস রাজনৈতিক আক্রমণ জারি রাখলেও, সংসদে আবার বিভিন্ন ইস্যুতে একসঙ্গে দেখা যায় তৃণমূল কংগ্রেস এবং কংগ্রেসকে৷

বিভিন্ন মহলে এমন প্রশ্নও রয়েছে, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে পরাস্ত করতে বিরোধীরা কি এককাট্টা হবেন? যদিও, অন্য বিভিন্ন মহলে আবার এমন সম্ভাবনার বিষয়টিকে কার্যত নাকচ করে দেওয়া হচ্ছে৷ স্বাভাবিক কারণেই প্রশ্ন উঠছে, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বিরোধী জোটে যদি থাকে কংগ্রেস এবং তৃণমূল কংগ্রেস, তা হলে প্রদেশ কংগ্রেসের কী অবস্থা হবে?

কারণ, তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক আক্রমণ জারি রয়েছে৷ অথচ, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বিরোধী ওই জোটে তখন তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কীভাবে রাজনৈতিক আক্রমণ জারি রাখবে প্রদেশ কংগ্রেস? অন্যদিকে, আগামী দিনে এ রাজ্যে বামেদের সঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেসের জোটের বিষয়টিও রয়েছে৷ স্বাভাবিক কারণেই বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠছে, এই ধরনের পরিস্থিতির মধ্যে তখন কোন অবস্থানে থাকবে প্রদেশ কংগ্রেস?

পশ্চিমবঙ্গে শিবসেনার অবস্থাও কার্যত প্রদেশ কংগ্রেসেরই মতো৷ এবং, কার্যত একই ধরনের অবস্থার জন্যই রাজ্য শিবসেনাকে প্রদেশ কংগ্রেসের ‘দোসর’ হিসাবেও উল্লেখ করছে ওয়াকিবহাল মহলের বিভিন্ন অংশ৷ এর ব্যাখ্যা হিসাবে ওই সব অংশে এমনই চর্চা জারি রয়েছে, আগামী লোকসভা নির্বাচনে এ রাজ্যে ৪২টি আসনে প্রার্থী দিতে চাইছে শিবসেনা৷ এই লক্ষ্যে প্রস্তুত হওয়ার কথা রাজ্য শিবসেনাকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বলেছে, এমনও জানানো হয়েছে৷

একই সঙ্গে ওয়াকিবহাল মহলের বিভিন্ন অংশে এমন প্রশ্নও উঠছে, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে শিবসেনা যদি এনডিএ জোটেই থাকে, তখন কোন অবস্থানে থাকবে এ রাজ্যের শিবসেনা? কারণ, রাজ্য শিবসেনা বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির বিরোধিতাও করছে৷ এই ধরনের পরিস্থিতির মধ্যে, আগামী লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ জোটে থেকে রাজ্য বিজেপির বিরোধিতা কীভাবে সম্ভব?

ওয়াকিবহাল মহলের বিভিন্ন অংশে এমন চর্চা জারি থাকলেও, প্রদেশ কংগ্রেসের তরফে যেমন হাইকম্যান্ডের কথা বলা হয়, এ ক্ষেত্রে রাজ্য শিবসেনারও কার্যত একই অবস্থান৷ এই বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গে শিবসেনার সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র অশোক সরকারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘‘কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যেমন বলবেন, সেভাবে চলব৷’’