স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: ফের বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠল৷ বাঁকুড়ার কাটোরা গ্রামের বাসিন্দা পাপিয়া ঘোষ অভিযোগ, চিকিৎসায় গাফিলতির কারণে তাঁর সদ্যজাতের মৃত্যু হয়েছে৷ এমনকী কর্তব্যরত দু’জন চিকিৎসক তাঁদের গালিগালাজ করেছেন বলেও অভিযোগ তোলা হয়েছে৷

অভিযোগ, সন্তান প্রসবের জন্য পাপিয়া ঘোষ প্রথমে স্থানীয় পাত্রসায়র ব্লক হাসপাতালে ভর্তি হন৷ সেখান থেকে তাঁকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়৷ অভিযোগ হাসপাতালে ভর্তির পর থেকে তাঁকে ওষুধ দেওয়া হয়নি৷ গত শুক্রবার রাতে সন্তান প্রসবের পর সেই সদ্যজাত অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ তখন আইসিইউতে সামান্যক্ষণ রেখে বের করে দেওয়ার পর৷ পরে গত রবিবার ওই সদ্যজাত মারা যায় বলে অভিযোগ পাপিয়া ঘোষের৷

বিনা চিকিৎসায় শিশু মৃত্যু ও দোষী ডাক্তারদের শাস্তির দাবি জানিয়ে সোমবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন পাপিয়া ঘোষ৷ এই বিষয়ে জানতে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সুপার শুভেন্দু বিকাশ সাহার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে একটি তরফে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে৷ তারা যা রিপোর্ট দেবেন তার ভিত্তিতেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷