ভোপাল : স্বঘোষিত ধর্মগুরু কম্পিউটার বাবা বিপাকে৷ তার বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ এনেছে নির্বাচন কমিশন৷ শুধু তাই নয়, তার আইনজীবী চন্দ্রশেখর রায়করের বিরুদ্ধেও অভিযোগ আনা হয়েছে৷ কম্পিউটার বাবা ওরফে নামদাস ত্যাগীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি নির্বাচন চলাকালীন কংগ্রেস প্রার্থী দিগ্বিজয় সিংকে নিয়ে তিন দিনের যজ্ঞের আয়োজন করেন৷

এই যজ্ঞের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিগ্বিজয়ের পরিবারও৷ সেখানে হঠ যোগ পালন করা হয়৷ পরে বিজেপির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ ভোপালের ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর সুদাম পান্ডারিনাথ জানিয়েছেন একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে নির্বাচন কমিশনের কাছে রিপোর্ট দেবে কমিটি৷ বিশেষ করে খতিয়ে দেখা হবে ভোপালের কংগ্রেস প্রার্থী দিগ্বিজয় সিংয়ের এই যজ্ঞে ভূমিকা কি ছিল৷

তবে কম্পিউটার বাবা নিজের সাফাইয়ে জানিয়েছেন তিনি জানেন না কেন দিগ্বিজয় এবং তার স্ত্রী যজ্ঞস্থলে এসেছিলেন৷ তিনি সেখানে তাঁদের আসার জন্য অনুরোধ জানাননি৷ তিনি আরও জানান, তাছাড়া এই যজ্ঞ অনুষ্ঠিত হয়েছিল অনুদান থেকে প্রাপ্ত অর্থ থেকে।

উল্লেখ্য কম্পিউটার বাবা প্রাক্তন বিজেপি সদস্য৷ তিনি দলত্যাগ করেন মধ্যপ্রদেশ থেকে টিকিট না পেয়ে৷ তারপরেই বিজেপির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন এই স্বঘোষিত ধর্মগুরু৷ এই লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের হয়ে প্রচার শুরু করেছেন তিনি। মধ্যপ্রদেশের জনপ্রিয় কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিংয়ের জন্য আয়োজন করেছিলেন বিশাল যজ্ঞানুষ্ঠানের। যাতে সামিল হয়েছিলেন খোদ ভোপালের কংগ্রেস প্রার্থী৷

যার কারণে নির্বাচন কমিশনের প্রশ্নবানের মুখে পড়তে হয় স্বঘোষিত গডম্যান কম্পিউটার বাবাকে। কমিশনের পাঠানো নোটিশের জবাব দিয়ে কম্পিউটার বাবা বললেন, দিগ্বিজয় সিংকে যজ্ঞে তিনি আমন্ত্রণ জানান নি।

মধ্যপ্রদেশের ভোপালের সাইফিয়া কলেজ চত্বরে ৩দিন ব্যাপী যজ্ঞানুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন কম্পিউটার বাবা ওরফে নামদাস ত্যাগী। গেরুয়া বসন, মাথায় জটা, কপালে সুবিশাল তিলকধারী, গায়ে ছাই মাখা অবস্থায় সামনে খোলা ল্যাপটপ। এটাই চেহারার বর্ণনা স্বঘোষিত গডম্যানের। কম্পিউটার চালানোতে অত্যন্ত দক্ষ হওয়ায় তিনি পরিচিতি পেয়েছিলেন ‘কম্পিউটার বাবা’ হিসেবে।