ক্যানবেরা: স্টেডিয়ামে ক্রীড়া নৈপুণ্যের ঝলক থাকবে৷ আর নিরাপত্তার সর্বাধুনিক ঝলক থাকবে বাইরে৷

ফাইটার জেট ও ড্রোন গানের কড়া বলয়ের মাঝে পরিচালিত হবে কমনওয়েলথ গেমস৷ নিরাপত্তায় কোনওরকম ফাঁক রাখতে চায়না অস্ট্রেলিয়া সরকার৷ জঙ্গি হামলা মোকাবিলায় থাকছে বিশেষ কমান্ডো বাহিনী৷

এবিসি সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, কুইন্সল্যান্ড সিটির স্টেডিয়ামের আকাশে চক্কর কাটছে অস্ট্রেলিয় বিমান বাহিনীর বিশেষ ফাইটার জেট৷ তৈরি প্যারাসুট বাহিনী৷ দমকল সহ আপৎকালীন প্রতিরক্ষা ও উদ্ধারকারী দলও প্রস্তুত৷ যে কোনওরকম পরিস্থিতির মোকাবিলায় প্রস্তুতি সম্পন্ন৷ শুরু হয়েছে কাউন্ট ডাউনের পালা৷

কমনওয়েলথ গেমস দেখতে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৬ লক্ষ ৭২ হাজার দর্শক উপস্থিত হয়েছেন৷ দেশের প্রতিটি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে বিশেষ সতর্কতা ও সিকিউরিটি চেকিংয়ের নির্দেশ দিয়েছে সরকার৷ শুধু বিমান বন্দর নয়, রেল স্টেশন, বাস স্ট্যান্ড, বন্দরগুলিতেও থাকছে নিরাপত্তার বজ্র আঁটুনি৷

বারবার নাশকতার ঘটনা ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ায়৷ একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে ইসলামিক স্টেট জঙ্গি সংগঠনে যোগ দেওয়ার প্রমাণ মিলেছে৷ ফলে সুরক্ষা বলয়ের কঠিন বর্ম পরিয়ে দেওয়া হল৷ বুধবার নির্দিষ্ট সময়েই কুইন্সল্যান্ডের কারারা স্টেডিয়ামে উদ্বোধন হবে ২১তম কমনওয়েলথ গেমসের৷ অনুষ্ঠানে থাকছেন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান সহ ভিভিআইপি অতিথিরা৷

অলিম্পিক, এশিয়ান গেমসের পর কমনওয়েলথ গেমসের মতো বৃহত্তম ক্রীড়ানুষ্ঠান বরাবরই চর্চিত বিষয়৷ সংবাদ সংস্থা বিবিসি জানাচ্ছে, এমন বৃহত্তম ক্রীড়া সূচিতে যাতে কোনওরকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার৷

ইতিমধ্যেই দেশের সর্বত্র জারি হয়েছে বিশেষ সতর্কতা৷ রাজধানী ক্যানবেরা, অন্যতম বড় শহর সিডনি, ব্রিসবেন মেলবোর্ন সহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক শহরগুলিতে শুরু হয়েছে বিশেষ তল্লাশি৷ আর মূল অনুষ্ঠানের কেন্দ্র কুইন্সল্যান্ডের সর্বত্র নিরাপত্তার কড়া বলয়৷

গত কয়েকবছর ধরে ইউরোপের রাস্তায় পথচারীদের উপর গাড়ি চালিয়ে দিয়ে নাশকতা ঘটিয়েছে আইএস জঙ্গিরা৷ অস্ট্রেলিয়াতেও যাতে সেরকম পরিস্থিতি তৈরি না হয় তার জন্য দেশটির কুইন্সল্যান্ডের সড়কে থাকছে অতিরিক্ত নিরাপত্তা৷ অন্তত ৩৭ হাজার অতিরিক্ত পুলিশকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে৷ তাদের সজাগ চোখে থাকবে প্রতিটি পথচারীর দিকে৷