কলকাতা: শিরোনামে ভারতী ঘোষ৷ রবিবার সকালে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী কেশপুরের পিকুদার ১৩৯ নম্বর বুথে ঢুকে ভিডিওগ্রাফি করতে থাকেন৷ যা বেআইনী৷ কিন্তু বিভিন্ন বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যেমে ধরা পড়ে সেই ছবি৷ তারপরই পদক্ষেপ করে কমিশন৷

আরও পড়ুন: কেশপুর হিংসা নিয়ে রিপোর্ট তলব কমিশনের

পিকুরদার ১৩৯ নম্বর বুথের প্রিসাইডিং অফিসার ভিডিওগ্রাফি করার সময় বাধা দেননি৷ ওই বুথের প্রিসাইডিং অফিসারকে সরিয়ে দিতে হবে৷ জেলাশাসককে নির্দেশ দেয় কমিশন৷ এছাড়াও ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতেও নির্দেশ দেওয়া হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলাশাসককে৷

অন্যদিকে, নির্বাচনী আচরনবিধি না মানায় বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইআরের নির্দেশ দেয় কমিশনের৷ ভোট চলাকালীন তিনি তার সশস্ত্র দেহরক্ষী নিয়ে একটি বুথেপ্রবেশ করেন৷ সেই ঘটনায় কমিশন রিপোর্ট তলব করে৷ শেষে পর্যন্ত বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে এফআইআর এর নির্দেশ দেওয়া হয়৷

উল্লেখ্য,ঘাটালের কেশপুরের চাঁদখোলাতে ভারতীকে হেনস্তা করার অভিযোগ ওঠে৷ শুরু হয় ধাক্কাধাক্কি৷ আর তাতেই পড়ে গিয়ে প্রার্থী আহত হন এবং কান্নায় ভেঙে পড়েন৷ এর পাশাপাশি দোগাছিয়াতে ভারতীয় গাড়ি ঘিরে হামলা হয়, চলে ইট-পাথরবৃষ্টি৷ তার দেহরক্ষীর ইটের ঘায়ে মাথা ফাটে৷ ভারতী ঘোষ জানান, তাঁকেও ঘুষি মারা
হয়৷ কেন্দ্রীয়বাহিনীর জওয়ানদের গাড়িও ভাঙচুর হয়৷ তাকে রক্ষায় শূন্য পাঁচ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে তাঁর দেহরক্ষীরা৷ আর তাতেই এক তৃণমূল কর্মী, বখতিয়ার খান আহত হন৷ তার চিকিৎসা চলছে৷

আরও পড়ুন: বাংলার ভোট LIVE UPDATE: ভারতীর ভিডিওগ্রাফি, প্রিসাইডিং অফিসারকে সরাল EC

এদিন বেলা ৩টে নাগাদ কেশপুরের ঝেটলায় ফের বিক্ষোভের মুখে ভারতী ঘোষ৷ মুড়ি-মুড়কির মতো সেখানে বোমা পড়ার খবর পাওয়া যায়৷