নয়াদিল্লি: বিজেপি নেতার টুইটে এবার ক্ষুব্ধ নির্বাচন কমিশন। আপ ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়া ওই নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের। আসন্ন দিল্লি বিধানসভা ভোট নিয়ে একটি টুইট করেছিলেন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র। দিল্লি বিধানসভা ভোটকে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করেন কপিল। তারই জেরে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের।

দিন যত এগোচ্ছে দিল্লির বিধানসভা ভোট ঘিরে পারদ ততই চড়ছে। আপ সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি-সহ একাধিক অভিযোগ তুলে প্রচারে শান দিচ্ছে বিজেপি। একাধিক সভা-মিছিলে আপ সরকারকে তোপ দেগে চলেছেন বিজেপির নেতা-মন্ত্রীরা। একইসঙ্গে রাজধানী ঘুরে চলছে জনসংযোগের কাজও।

অন্যদিকে, বিগত বছরগুলির উন্নয়নের কাজের উদাহরণ তুলে ধরে প্রচার তুঙ্গে করেছে আপ। এবারও দিল্লিবাসী আপকেই সমর্থন করবে বলে আশাবাদী বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। বরং ক্ষমতায় এলে চালু কাজ দ্রুত শেষ করার আশ্বাস কেজরির। নির্বাচনের ময়দানে আপ-কে কোণঠাসা করতে চেষ্টার কোনও কসুরই করছেন না বিজেপি নেতারা। কখনও কখনও অভিযোগ করতে গিয়ে বিজেপি নেতাদের মন্তব্যে বিতর্কও ছড়াচ্ছে। সেই তালিকায় এবার নবতম সংযোজন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র। আসন্ন দিল্লি বিধানসভা ভোটকে কপিল ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করে একটি টুইট করেছেন। সেই টুইট দেখে কপিলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কপিলের এই টুইটে সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগ রয়েছে।

দিল্লির নির্বাচন কমিশনের প্রধান রণবীর সিং পুলিশকে মামলা রুজু করতে নির্দেশ দিয়েছেন। নির্বাচনের আগে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রের বিরুদ্ধে। আম আদমি পার্টির ছাড়ার আগে বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকারের মন্ত্রী ছিলেন কপিল মিশ্র। বিজেপিতে যোগ দিয়ে দিল্লির মডেল টাউন থেকে বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী হয়েছেন কপিল।

দিল্লি বিধানসভা ভোট প্রসঙ্গে কপিল মিশ্রের দাবি, ‘দিল্লিতে ‘মিনি-পাকিস্তান’ তৈরি হচ্ছে। সেই ‘পাকিস্তানি দাঙ্গাবাজরা’ রাস্তা দখল করছে। আমরাও তৈরি আছি। দেখা যাবে ভারত-পাকিস্তানের সেই লড়াইয়ে কে জেতে।’ ইতিমধ্যেই কমিশনের তরফে কপিলকে শোকজ নোটিস পাঠানো হয়েছে। কমিশনের কর্তারা এখন কপিলের জবাবের অপেক্ষায় রয়েছেন। এমনকী কমিশন তাঁদের আপত্তির কথা ইতিমধ্যেই টুইটার কর্তৃপক্ষকেও জানিয়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও