প্রতীকী ছবি

গুরগাঁও: ফের গণধর্ষণের মতো নক্ক্যারজনক ঘটনা ঘটল হরিয়ানাতে৷ বুধবার সিবিএসই টপারকে অপহরণ করে গণধর্ষণ করা হয়৷ এরপর তাকে অচৈতন্য অবস্থায় বাসস্ট্যান্ডে ফেলে রেখে চলে যায় অভিযুক্তরা৷

জানা গিয়েছে, দ্বিতীয় বর্ষের কলেজ ছাত্রী কোচিং সেন্টারে যাওয়ার সময় তিনজন ব্যক্তি তাকে অপহরণ করে তাকে একটি মাঠের মধ্যে তুলে নিয়ে যায়৷ সেখানে তাকে একের পর এক ধর্ষণ করে তারা৷ মাঠে আগে থেকেই আরও কয়েকজন উপস্থিত ছিল, তারাও এসে ধর্ষণ করে ওই কলেজ পড়ুয়াকে৷ নির্যাতিতার গ্রামেরই বাসিন্দারা তাকে ধর্ষণ করে এবং মুখ না খোলার হুমকি দেয় বলে পুলিশের কাছে জানিয়েছে সে৷

নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগ পুলিশ প্রথমে তাদের এফআইআর নিতে অস্বীকার করে৷ এক থানা থেকে অন্য থানার ঘুরে হয়রানির শিকার হয় তারা৷ যদিও রেওয়ারির এক পুলিস আধিকারিক জানায়, নির্যাতিতার অভিযোগ খতিয়ে দেখে একটি জিরো এফআইআর ফাইল করা হয়েছে৷

পড়ুন: স্ত্রীয়ের সঙ্গে ভাইয়ের সম্পর্ক জেনে ফেলাতেই কি এই অবস্থা?

এর কিছুদিন আগেই অগস্টের শেষ সপ্তাহে, ১৬ বছরের এক নাবালিকাকে অপহরণের পর জোর করে মদ্যপান ও পরে গণধর্ষণ করা হয়৷ এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় বাড়ির কাছে একটি জায়গায় মেয়েটিকে ফেলে পালিয়ে যায়৷ ঘটনাটি ঘটে গ্রেটার নয়ডার গৌতম বুদ্ধ নগরের দস্তামপুর গ্রামে৷ পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার দিন ২৪ অগস্ট মেয়েটি সেলাই ক্লাস থেকে বাড়ি ফিরছিল৷ সেই সময় বাইকে করে তার পথ আটকায় দুই জন৷ জবরদস্তি তাকে বাইকে তুলে নির্জন জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়৷ জোর করে মদ্যপান করানো হয়৷ এরপর শুরু হয় নির্যাতন৷ বাধা দিলে নাবালিকাকে মারধর পর্যন্ত করে তারা৷ পরের দিন সকালে দস্তামপুর গ্রামে নাবালিকাকে ফেলে পালিয়ে যায় দুই জন৷