স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিশ্ববিদ্যালয়ের খামখেয়ালিপনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হল যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজ। যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজ এবং যোগেশচন্দ্র চৌধুরী আইন কলেজ চলে একই বাড়িতে।

আরও পড়ুন- রেলের কোপে মন্দির, বাংলাবাসী দক্ষিণীদের দাবি ‘সংরক্ষণ’

অথচ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় দু’টি কলেজকেই প্রায় আলাদা করে একই সময়ে পরীক্ষা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। যাতে, ওই কলেজের একটি শিক্ষাবর্ষে, ১০০ দিনের বেশি সময়ই চলে যাবে পরীক্ষা নিতে।

কলেজে এক সঙ্গে একদিনে ৪২৫ পরীক্ষার্থীর জায়গা বাড়িয়ে প্রায় ৭০০ জন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা দেওয়ার সংকুলানও করতে হবে। করতে হবে যথোপযোগী ব্যবস্থাও। কিন্তু এতে মোটেই রাজি নয় কলেজ কর্তৃপক্ষ।

প্রতীকী ছবি

যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজের তরফে বিষয়টির প্রতিবাদ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আইনের পরীক্ষার পাশাপাশি বিএ, বিএসসি, বিকম পার্ট থ্রি-র অনার্স পরীক্ষা নেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন। কলেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, এতদিন পরীক্ষা চললে ক্লাসের সময় কমে যাবে। তাতে চয়েস বেসড ক্রেডিট সিস্টেমে (সিবিসিএস) পঠনপাঠনে সমস্যা হবে।

সহ উপাচার্য (শিক্ষা) দীপক কর জানিয়েছেন, অতিরিক্ত পরীক্ষার্থীর সমস্যা সমাধানে বিজয়গড় জ্যোতিষ রায় কলেজ, নেতাজিনগর কলেজ এবং নেতাজিনগর ডে কলেজের পরীক্ষার্থীদের যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজের বদলে হেরম্বচন্দ্র কলেজে পাঠানো হয়েছে।