নয়াদিল্লিঃ দেশ জুড়ে চলছে লক ডাউন। যার জেরে থমকে গিয়েছে দেশের ব্যবসা। একাধিক সংস্থা কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করতে বললেও বেশ কিছু সংস্থা কার্যত বন্ধ। যার জেরে বিপুল প্রভাব পরেছে দেশের অর্থনীতিতে। তবে অন্যতম জনপ্রিয় মার্কিন সংস্থা কগনিজেন্টের তরফে জানানো হয়েছে তারা পুনরায় বিনিয়োগ করবে ডিজিটাল ক্ষেত্রে।পাশপাশি করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতির মুখে পরলেও ফের নতুন করে উঠে দাঁড়ানোর জন্য তারা বেশ কিছু পরিকল্পনা গ্রহন করেছে।

সংস্থার তরফে জানা গিয়েছে প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রে আরও উন্নত করার জন্য এবং সংস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রায় ২০ হাজার প্রাথমিক স্তরের কর্মী নিয়োগের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। পাশপাশি সংস্থার তরফে সকলকে জানানো হয়েছে এই কঠিন সময়ে সকলে যাতে এক হয়ে কাজ করে। পাশাপাশি এই জটিল পরিস্থিতিতে সংস্থার তরফে কর্মীদের যতটা সম্ভব সাহায্য করাী আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে এই পরিস্থিতি দ্রুত কাটিয়ে ওঠার ক্ষেত্রে বেশ কিছু ক্ষেত্রে খরচ কমানো হবে মূল লক্ষ।

যা এই করোনা ভাইরাসের জেরে হওয়া লক ডাউনের ধাক্কাকে কিছুটা হলেও সামাল দিতে পারবে বলে মনে করা হচ্ছে। যেহেতু স্বাস্থ্য খাতে এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এই সংস্থা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে থাকে সেই কারণে মনে করা হচ্ছে এই খরচ কমানোর ফলে কিছুটা হলেও সুবিধা হবে।

কগনিজেন্ট সিইও ব্রায়ান হ্যাম্ফ্রিজ জানিয়েছেন বিশ্বজুড়ে চলা এই মহামারীর মধ্যেও ব্যবসায়িক কার্যকলাপ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি এবং তার কর্মীরা। যাতে সকলকে তারা সকলকে নিজেদের পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে পারেন তার চেষ্টাও করছেন। তিনি নিশ্চিত ভাবে জানিয়েছেন এই পরিস্থিতি সকলে মিলে দ্রুত কাটিয়ে উঠবেন এবং দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থাতে ফিরে যাবেন।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।