মুম্বই: মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ের ছত্রপতি শিবাজি টার্মিনাস থেকে ছেড়েছিল অন্ত্যোদয় এক্সপ্রেস৷ গন্তব্য উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর৷ মাঝপথেই ঘটে গেল বিপত্তি৷ রেললাইন ছেড়ে মাটিতে নেমে এল ট্রেনের বেশ কয়েকটা কামরা৷

দুর্ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের নাসিকের কাছে কাসারা ঘাট এলাকায়৷ তবে সূত্রের খবর বড়সড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি৷ যাত্রীদের সামান্য ঝাঁকুনি লেগেছে বলে খবর৷ যদিও আতংকিত যাত্রীরা মনে করছেন বড় দুর্ঘটনা ঘটতেই পারত, হতে পারত প্রাণহানি৷

বৃহস্পতিবার ভোররাতে এই দুর্ঘটনা ঘটে৷ প্রায় ভোর ৩টে নাগাদ অন্ত্যোদয় এক্সপ্রেসের দ্বিতীয় বগিটির চাকা পিছলে লাইন থেকে নেমে আসে বলে জানাচ্ছে রেল৷ সেইসময় ট্রেনের অধিকাংশ মানুষই ঘুমোচ্ছিলেন৷ বড়সড় একটা ঝাঁকুনি অনুভব করেন তাঁরা৷

আরও পড়ুন : কল ড্রপে জেরবার ‘টক টু মেয়র’, BSNL ছাড়তে চান বিরক্ত ফিরহাদ

জি নিউজকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ওই ট্রেনের যাত্রী রাধেশ্যাম চৌধুরি জানান, ট্র্যাক থেকে ট্রেনের চাকা নেমে যেতেই বিকট আওয়াজ হয়৷ সঙ্গে সঙ্গে ট্রেনের চালক এমার্জেন্সি ব্রেক কষেন৷ তারপরেই জোরে ঝাঁকুনি দিয়ে থেমে যায় ট্রেনটা৷

কাসারা ঘাটের একটি ব্রিজের কাছে এই দুর্ঘটনা ঘটে৷ যাত্রীরা মনে করছেন ব্রিজের ওপর এই দুর্ঘটনা ঘটলে অনেক যাত্রীরই প্রাণহানি ঘটতে পারত৷ যাত্রীদের ঘটনার পরপরই নামিয়ে আনা হয়৷ খবর যায় নিকটবর্তী স্টেশনে৷ সেন্ট্রাল রেলওয়ে থেকে উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা ছুটে আসেন৷ ওই লানে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়৷

যাত্রীরা নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন৷ তাদের অভিযোগ এই দুর্ঘটনার দীর্ঘ সময় পরেও তাদের খাবার ও পানীয় জল দেওয়া হয়নি৷