রায়গঞ্জ: করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সব ব্যাংকেগুলোকে বিভিন্ন ঋনের ক্ষেত্রে তিন মাসের ই এম আই ছাড়ের কথা ঘোষনা করেছে রিজার্ভ ব্যাংক। কিন্তু নতুন মাস শুরু হতেই এই নিয়ে ব্যাপক জলঘোলা হয়। বিভিন্ন ব্যাংক নিয়ম মেনেই গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কাটকে শুরু করেছে।

কিন্ত রির্জাভ ব্যাংকের এই নির্দেশের উলটো পথ গিয়েছে রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কোঅপারেটিভ ব্যাংক। তারা এই তিন মাস গ্রাহকদের ঋনের ই এম আই নেওয়া বন্ধ রাখবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে। এই মর্মে ব্যাংকের বাইরে নোটিশ টাঙিয়ে দিয়েছে। তাদের বক্তব্য, ‘ই এম আই মোরাটোরিয়াম’ এবং ‘ডিফারমেন্ট অফ ইন্টারেস্ট’ এর অর্থ ছাড় বা মকুব নয়।

রিজার্ভ ব্যাংক থেকে যে নির্দেশিকা এসেছে, তাতে তিন মাসের জন্য ‘ই এম আই মোরাটোরিয়াম’ ঘোষনা করলে চতুর্থ মাস থেকে তিনমাসের সম্পূর্ন সুদ ও আসল গ্রাহককে ফেরত দিতে হবে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সমবায় ব্যাংক সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যেহেতু গ্রাহকের বেতনের অ্যাকাউন্টে নিয়মিতভাবে টাকা জমা হবে এবং করোনার ফলে বেতন দেওয়া কোনভাবেই বন্ধ হবে না, তাই নিয়িমিতভাবে ব্যাংক গ্রাহকদের থেকে আগামী তিন মাস ই এম আই কাটা হবে।

উল্লেখ্য, রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাংক থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকার মাসিক বেতন হয় এবং তাঁরা এখান থেকেই প্রয়োজন মতো ঋন নেন।রায়গঞ্জ: করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সব ব্যাংকেগুলোকে বিভিন্ন ঋনের ক্ষেত্রে তিন মাসের ই এম আই ছাড়ের কথা ঘোষনা করেছে রিজার্ভ ব্যাংক। কিন্তু নতুন মাস শুরু হতেই এই নিয়ে ব্যাপক জলঘোলা হয়। বিভিন্ন ব্যাংক নিয়ম মেনেই গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কাটকে শুরু করেছে।

রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাংক পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সমরায় ব্যাংকের সদস্য হওয়ায় রাজ্য সমবায় ব্যাংকের সিদ্ধান্ত মেনেই এই কাজ করা হচ্ছে। রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাংকের চেয়ারম্যান রতন চৌধুরী এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। রায়গঞ্জের এই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ পাশাপাশি ঘোষনা করেছে, লকডাউন চলাকালীন যদি গ্রাহকদের বাড়তি টাকার প্রয়োজন হয়, তবে তারা এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত বাড়তি তুলতে পারবেন। উল্লেখ্য, রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাংক থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকার মাসিক বেতন হয় এবং তাঁরা এখান থেকেই প্রয়োজন মতো ঋন নেন।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।