ওয়াশিংটন: আমেরিকায় ট্রাম্প প্রশাসন ও সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে বিতর্ক ও সমস্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে৷ এবার মার্কিন সংবাদ সংস্থা সিএনএন তাদের সাংবাদিক জিম অ্যাকোস্টার প্রেস পাস বাতিল করার প্রতিবাদে কেস করে দিয়েছে৷ সিএনএন কেস করেছে রাষ্ট্রপতি ডনাল্ড ট্রাম্প ও হোয়াইট হাউসের শীর্ষ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে৷

কেসটি করা হয়েছে ওয়াশিংটনের US জেলা আদালতে৷ CNN ট্রাম্প ও তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে কেস করে জানিয়েছে তাদের সাংবাদিক জিম আকোস্টাকে নিষিদ্ধ বলে যে ঘোষণা করা হয়েছে তা দ্রুত সরিয়ে নিক৷ গত সপ্তাহেই হোয়াইট হাউসে ডনাল্ড ট্রাম্পকে কিছু প্রশ্ন করতেই তাঁর প্রেস পাস নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়৷

আরও পড়ুন: জন্মদিনে মরনোত্তর দেহ ও চক্ষুদানের অঙ্গীকার তৃণমূলনেতার

মঙ্গলবারই CNN ডনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে করা কেসে জানায়, রাষ্ট্রপতি ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বাক বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ার পরেই জিম আকোস্টার প্রেস পাস বাতিল করে দেওয়া হয়েছে যেটা সংবিধান বিরুদ্ধ কাজ৷ সংবিধান অনুযায়ী এটা সাংবাদিকদের অধিকার কেড়ে নেওয়ার মধ্যে পড়ে৷

CNN কেস করার পরে সেটি ঘোষণা করার সময় জানায়, “প্রেস পাস বেঠিক উপায়ে বাতিল করা প্রেসের স্বাধীনতায় CNN ও আকোস্টার প্রথম সাংবিধানিক অধিকার এবং যথাযথ প্রক্রিয়াটির পঞ্চম সংশোধনী অধিকারের লঙ্ঘন৷”

আরও পড়ুন: পুলিশের সামনেই ফাটল চকোলেট বোমা, ভলান্টিয়ারের পিছনে দোদমা

CNN তাদের বয়ানে জানিয়েছে “আমরা আদালতে হোয়াইট হাউসের এই নির্দেশ হোয়াইট হাউস যাতে দ্রুত সরিয়ে নেয় সে বিষয়ে আদালতে আপিল করেছি৷ আমরা এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে স্থায়ী সমাধান চাইছি৷ যদি পাল্টা চ্যালেঞ্জ না দেওয়া হয় তাহলে নির্বাচিত আধিকারিকদের খবর করার ক্ষেত্রে যেকোনও সাংবাদিকের ক্ষেত্রেই ভবিষ্যতে এমন প্রতিবন্ধকতা আসতে পারে৷”

হোয়াইট হাউসের প্রতিনিধিরা তাদের বিরুদ্ধে সিএনএনের করা কেসটিকে স্বাগত জানিয়েছে এবং বলেছে, হোয়াইট হাউসের পরিসরে ঢুকতে না দেওয়াটা কোনও ঘটনার সময় বেঠিক প্রতিক্রিয়া দেওয়ারই সমান৷ এসোসিয়েশন জানিয়েছে “আমরা ট্রাম্প প্রশাসনকে তাদের সিদ্ধান্ত পাল্টাতে এবং সিএনএন এর সাংবাদিককে পূর্ণ মর্যাদার সঙ্গে সেখানে বহাল করার জন্য ক্রমাগত আপিল করে চলেছি৷”

আরও পড়ুন: ভুয়ো খবরের নেপথ্যে জাতীয়তাবাদী শক্তি: বিবিসি