কলকাতা: ভুল বলছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠকের পর বিস্ফোরক দাবি করলেন NRS-এর জুনিয়র ডাক্তাররা।

তাঁদের দাবি, কোনও মেডিক্যাল কলেজ থেকে প্রতিনিধি দল নবান্নে যায়নি। অথচ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠক চলাকালীনই জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলতে চেয়ার ছেড়ে উঠে যান। পাঁচজন জুনিয়র ডাক্তার গিয়েছিলেন বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই পাঁচজনের নাম প্রকাশের দাবি তুললেন জুনিয়র ডাক্তাররা।

এছাড়া, এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, তিনি বারবার ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলেও কেউ কথা বলতে চাননি। এই দাবিও উড়িয়ে দিয়েছেন জুনিয়র ডাক্তাররা। আন্দোলনের মঞ্চ থেকে বিবৃতি দিয়ে তাঁরা বলেন, এই তথ্য ভুল। পাশাপাশি, তাঁদের দাবি নিয়ে কোনও পর্যালোচনা হয়নি বলে অভিযোগ করে বিক্ষোভরত চিকিৎসকরা বলেন, তাঁদের আন্দোলন জারি থাকবে।

শনিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাংবাদিক বৈঠক থামিয়েই জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলতে যান মমতা। কয়েক মিনিট পর ফের বৈঠকে ফেরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা কাজ করতে চান তাঁরা দ্রুত কাজে ফিরুন, এমন বার্তাই দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতা বলেন, সরকার ঘটনার পরের দিন থেকে চেষ্টা করছে। ঘটনার পরেই এনআরএসে পাঠানো হয় চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে। ফোনে কথা বলতে চান মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু ওরা কথা বলতে চায়নি।